সনদ পেলেন ৩৫ শিক্ষার্থী

Japan-techshohor

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : আইটি ইঞ্জিনিয়ারের দক্ষতা উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত ৩৫ জন শিক্ষার্থীকে সনদপত্র বিতরণ করেছেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

এ উপলক্ষে বুধবার আগারগাঁওয়ের আইসিটি টাওয়ারে বিসিসি’র মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সেখানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আপনারাই হবেন জাপানে বাংলাদেশের ব্যান্ড অ্যাম্বাসেডর। জাপানি জনগণের সঙ্গে কাজ করার এই সুযোগ আমাদের তরুণদের জন্য দারুণ অভিজ্ঞতা সঞ্চয়ের সুযোগ সৃষ্টি করবে।

Techshohor Youtube

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, আমাদের দেশে প্রতি বছর ২০ লাখ গ্রাজুয়েট বের হয়। জাপানে প্রতিবছর প্রায় দুই লাখ আইটি প্রফেশনাল চাহিদা রয়েছে। তাই ভালোবাসা, সম্মান, দায়িত্ববোধ ও সময়ানুবর্তিতা এ চারটি বিষয় মেনে চলে জাপানের শ্রম বাজারে প্রবেশের এ সুযোগ কাজে লাগাতে হবে।

ঢাকায় নিযুক্ত জাপান দূতাবাসের কর্মকর্তা ইয়াসুহারু শিনত বলেন, জাপানে কর্মক্ষম লোক কমে যাচ্ছে। তাই আশেপাশের দেশ থেকে শ্রমিক আনা হচ্ছে। বাংলাদেশের বি-জেট থেকে এর আগে পাঁচটি ব্যাচ জাপানে গিয়েছে। সেখানে তাদের কাজের সুনাম ও প্রশংসা শুনছি আমরা।

জাইকা ও বাংলাদেশ সরকারের যৌথ অর্থায়নে জাপানিজ আইটি সেক্টরের উপযোগী করে আইটি ইঞ্জিনিয়ারের দক্ষতা উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে। প্রকল্পটি চলবে ২০২১ সাল পর্যন্ত। তারই অংশ হিসেবে প্রকল্পের আওতায় জাপানি ভাষা, জাপানি বিজনেস কালচার এবং আইডি’র ওপর তিন মাস মেয়াদি প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। এর আগের পাঁচটি ব্যাচে ১৫৬ জন শিক্ষার্থীকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।

এ বছর প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত ৩৫ জনের মধ্যে জাপানে ৬ জনের কর্মসংস্থান নিশ্চিত হয়েছে।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক পার্থপ্রতিম দেব এর সভাপতিত্বে অন্যান্যোর মধ্যে বক্তব্য রাখেন তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম, জাইকা বাংলাদেশের কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ হিতশি হিরাতা, ঢাকাস্থ জাপান দূতাবাসের ভারপ্রাপ্ত চার্জ দ্যা এফেয়ার্স ইয়াসুহারু শিনত ও প্রকল্প পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার গোলাম সারোয়ারসহ আরও অনেকে।

এজেড/ অক্টোবর ০২/২০১৯/১৭১৫

আরও পড়ুন –

তরুণ প্রকৌশলীদের ভারত-জাপানে প্রশিক্ষণে পাঠাচ্ছে সরকার

হাইটেক পার্কে বিনিয়োগ করতে আগ্রহী জাপান

*

*

আরও পড়ুন