এক যুগে অ্যান্ড্রয়েড

Android-10-techshohor
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : চলতি সপ্তাহেই ১১তম বছর শেষ করে এক যুগে পদার্পন করেছে স্মার্টফোনের বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড।

২০০৮ সালের সেপ্টেম্বরে গুগলের হাত ধরে বাণিজ্যিকভাবে উন্মোচন করা হয় অ্যান্ড্রয়েডের প্রথম সংস্করণ। অনেক চড়াই উতরাই পেরিয়ে ১২তম বছরে পা দিল এই অপারেটিং সিস্টেম।

গুগল তাদের কোথাও নির্দিষ্ট তারিখ উল্লেখ না করলেও ইউকিপিডিয়ার তথ্য বলছে, অপারেটিং সিস্টেমটি প্রাথমিকভাবে প্রথম উন্মোচন করা হয়েছিল ২০০৮ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর।

স্মার্টফোনের বাজারে চার ভাগের তিনভাগের বেশি বর্তমানে অ্যান্ড্রয়েডের দখলে। অ্যান্ড্রয়েড ১ দিয়ে যাত্রা শুরু হয়ে অনেকগুলো সংস্করণ বিভিন্ন নামে এসেছে। বর্তমানে সর্বশেষ সংস্করণের নাম রাখা হয়েছে অ্যান্ড্রয়েড ১০। যা চলতি মাসেই উন্মোচন করা হয়েছে।

শুরুটা যেমন ছিলঃ

গুগলের হাত ধরে অ্যান্ড্রয়েডের যাত্রা ২০০৮ সালে শুরু হলেও এর গোড়পত্তন হয়েছিল সেই ২০০৩ সালে অ্যান্ডি রুবিন নামক একজন ব্যক্তির হাত ধরে। তিনি এমন একটি অপারেটিং সিস্টেম তৈরি করেন, যার উদ্দেশ্য ছিল ক্যামেরায় ব্যবহার করে ডেটা কপি সহজ করা।

২০০৫ সালে গুগল এই প্রজেক্টটি কিনে নেয় এবং এর উন্নতিতে কাজ শুরু করে। গুগল এই অপারেটিং সিস্টেম নিয়ে একটা যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত নেয়, এটিকে মুক্ত প্লাটফর্ম করে দেয়। এর ফলে যেকেউ চাইলে এটি ব্যবহার করতে পারে। এর আগে যতগুলো অপারেটিং সিস্টেম চালু হয়েছিল কোনটিই মুক্ত ছিল না, সেগুলো ব্যবহার করতে মালিকানা প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্সের প্রয়োজন হতো। তাই গুগলের এমন সিদ্ধান্তের কারণে দ্রুতই অ্যান্ড্রয়েডের বিকাশ ঘটতে শুরু করে।

যেভাবে এতটা জনপ্রিয় হলো 

২০০৭ পরবর্তী সময়ে মোবাইল ওএসের বাজার দখলের চিত্র

২০০৫ সালে অ্যান্ড্রয়েড গুগল কিনে নেয়ার পর টানা ৩ বছর এটি নিয়ে নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালায়। অবশেষে ২০০৮ সালে তারা বাণিজ্যিকভাবে এটি বাজারে নিয়ে আসে।

অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহার করে ২০০৮ সালে এইচটিসি প্রথম স্মার্টফোন নিয়ে আসে। তারপর আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি। মুক্ত অপারেটিং সিস্টেম হওয়ায় একে একে প্রায় সব মোবাইল ফোন নির্মাতা অ্যান্ড্রয়েডের দিকে ঝুঁকতে থাকে। একে একে নতুন সব সংস্করণ নিয়ে আসে গুগল।

বর্তমান স্মার্টফোন বাজারের প্রায় ৭৬ শতাংশই তাদের দখলে। বাকি সব অপারেটিং সিস্টেম মিলিয়ে যেখানে বাজার রয়েছে মাত্র ২৪ শতাংশের।

আরও পড়ুনঃ

মোবাইল ওএসের বিবর্তনে অ্যান্ড্রয়েড যেভাবে অপ্রতিরোধ্য

যেসব সুবিধা থাকছে অ্যান্ড্রয়েড ১০ ওএসে

আরএ/ইএইচ/ সেপ্টে ২৪/ ২০১৯/ ২০৩০

*

*

আরও পড়ুন