ফাইভজি নেই তো কি হয়েছে?

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : নতুন তিন আইফোনে ফাইভজি নেটওয়ার্ক ব্যবহারের উপায় নেই। বিষয়টি নিয়ে মুখ চেপে হাসাহাসি করছে চীনের সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীরা।

তাদের সোশ্যাল মিডিয়া উইবোতে হ্যাশট্যাগ ‘আইফোন ১১ হ্যাজ নো ফাইভজি ভার্সন’ সম্বলিত পোস্টগুলো ৩ কোটি বার দেখা হয়েছে।

এক উইবো ব্যবহারকারী লিখেছেন, এবারের আইফোনগুলোতে আইওএস ছাড়া নতুন কিছু নেই। তাই পরের বছরের জন্য অপেক্ষা করছি।

আইফোনে ফাইভজি আসবে ২০২০ সালে। ততদিন পর্যন্ত অপেক্ষা নাও করতে পারেন চীনের অ্যাপল ভক্তরা। কারণ চীনের প্রায় প্রতিটি ব্র্যান্ডেরই ফাইভজি সংস্করণের ফোন বাজারে এসেছে।

তবে ফাইভজি না থাকায় আফসোসেরও কিছু নেই। দ্রুত গতিতে বিশাল বিশাল ফাইল ডাউনলোডের সময় ছাড়া শুধু গেইম খেলতে গেলে ফাইভজির শক্তি টের পাওয়া যায়।

এছাড়া, ফাইভজি দিয়ে তেমন কোনো কাজ হয় না। কারণ ফাইভজি প্রযুক্তিটি এখনো নতুন। কোন কোন ক্ষেত্রে এটি কাজে লাগানো যাবে তাও পুরোপুরি জানা যায়নি। ফাইভজি সুবিধাগুলো পূর্ণাঙ্গভাবে ব্যবহার করতে আরও কয়েক বছর সময় লাগবে।

এমন অবস্থায় ক্রেতারা অন্যকে দেখানোর জন্যই ফাইভজি ফোন কিনছেন বলে মন্তব্য করেছেন, গবেষণা প্রতিষ্ঠান স্ট্যানফোর্ড সি বার্নস্টেইনের বিশ্লেষক ক্রিস লেন ও স্যামুয়েল চেন।

তাদের মতে, শুধু ফাইভজি নেটওয়ার্কের খাতিরে ফোন আপগ্রেড করার সময় এখনো আসেনি।

আরও পড়ুন

ফাইভজিতে গতি কেমন?

এপি, ব্লুমবার্গ ও কোয়ার্টজ অবলম্বনে এজেড/ সেপ্টেম্বর ২১/২০১৯/১৩১৭

*

*

আরও পড়ুন