চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের চালিকা শক্তি হবে প্রযুক্তি : জব্বার

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ডাক  ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় ডিজিটাল প্রযুক্তি হচ্ছে  মূল চালিকা শক্তি।

বাংলাদেশের ডিজিটাল রূপান্তরের ফলে দেশে ২০২৪ সালের মধ্যে এমন কোনো বাড়ি থাকবে না, যে বাডিতে দ্রুতগতির ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের চাহিদা হবে না। জনগণের দোরগোড়ায় দ্রুতগতির ইন্টারনেট পৌঁছে দিতে বিটিসিএলসহ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানসমূহ কতটা প্রস্তুত তার যথাযথভাবে নিরূপণের মাধ্যমে ভবিষ্যত কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ণের জন্য তিনি সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন।

মন্ত্রী শনিবার ঢাকা ক্লাবে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে ও জেডটিই’র সহযোগিতায় বিটিসিএল আয়োজিত ‘আনলকিং পটেনসিয়ালস ফর বেটার  ফিউচার শীর্ষক’ দিনব্যাপী সেমিনারের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এই নির্দেশ দেন।

মোস্তাফা জব্বার ২০২৩ সালের মধ্যে দেশে ফাইভজি সেবা চালু করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করে বলেন, ফাইভজি কেবল একটা কথা বলার প্রযুক্তি নয়, তার জন্য ফোরজি প্রযুক্তিই যথেষ্ট। ফাইভজি দেশে  একটা  শিল্পবিপ্লব ঘটাবে। এই জন্য  এই প্রযুক্তি  শহরের  চেয়ে  গ্রামে বেশী   প্রয়োজন  হবে।

তিনি বলেন, গ্রামে স্বাস্থ্য ও কৃষিতে তা লাগবে। আমরা গ্রামে মোবাইল ফাইভজির ওপর নির্ভর না করে বিটিসিএলের মাধ্যমে যদি ল্যান্ডফোনে  ফাইভজি  দিতে  পারি  তবে জনগণ অনেক বেশী উপকৃত হবে। তিনি এই ব্যাপারে প্রস্তুতি গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্টদের পরামর্শ দেন।

মন্ত্রী বলেন, সরকারি প্রতিষ্ঠানের একমাত্র লক্ষ্য মুনাফা করা নয়। বিটিসিএলের অনেক কাজ জনসেবায় করা হচ্ছে এবং ভবিষ্যতেও তা অব্যাহত থাকবে।

টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী  উদ্ভাবনকে একটি জাতির ভবিষ্যত আখ্যায়িত করে বলেন, প্রতিষ্ঠান  সংশ্লিষ্টদের ভাবতে হবে সামনের জন্য তারা কতটা প্রস্তুত। যদি চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের জন্য আমাদের প্রস্তুতির ঘাটতি থাকে তবে তা পূরণ করতে হবে। না পারলে টিকে থাকা অসম্ভব।

আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে জব্বার বলেন, স্বপ্ন দেখুন, স্বপ্ন বাস্তবায়ন করুন, কেউ আমাদের অগ্রযাত্রা থামাতে পারবে না।

ইএইচ/ সেপ্টে ১৪/ ২০১৯/ ২০১৩

*

*

আরও পড়ুন