যে ফোনগুলো সবচেয়ে বেশি বিক্রি হয়েছে

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সারা বছরই বাজারে ফোন আসে। নির্দিষ্ট সময় পার হলে বাজার থেকে হারিয়েও যায়।

এই আসা যাওয়ার মাঝেই কিছু ফোন তুমুল জনপ্রিয়তা পায়। বিক্রি হয় লাখ লাখ ইউনিট।

সম্প্রতি লন্ডনভিত্তিক বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান আইএইচএস মার্কিট সবচেয়ে বেশি বিক্রীত ফোনের তালিকা প্রকাশ করেছে। চলতি বছরের প্রথমভাগে কোন ফোনের কতো ইউনিট বাজারে সরবরাহ করা হয়েছে তার উপর ভিত্তি করেই তালিকাটি তৈরি করেছে তারা।

আইফোন ১০ আর

সারা বছর শুধু এক কথাই শোনা গেছে। আশানুরূপ বিক্রি হয়নি নতুন আইফোন। এ কথা পুরোপুরি সত্যি নয়। কারণ সারা বিশ্বে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হওয়া ফোনের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে আইফোন ১০ আর। বছরের প্রথম ছয় মাসে সাশ্রয়ী আইফোনটির ২ কোটি ৬৪ লাভ ইউনিট বিক্রি হয়েছে।

গ্যালাক্সি এ১০

এটি স্যামসাংয়ের এন্ট্রি লেভেলের ফোন। বিক্রির তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে জায়গা করে নিয়েছে ফোনটি। বাজারে এর ১ কোটি ৩৪ লাখ ইউনিট সরবরাহ করা হয়েছে।

গ্যালাক্সি এ৫০

তৃতীয় স্থানটিও রয়েছে স্যামসাংয়ের দখলে। এখন পর্যন্ত ফোনটি বাজারে সরবরাহ করা হয়েছে ১ কোটি ২০ লাখ ইউনিট।

আইফোন ৮

২০১৭ সালে বাজারে এসেছে ফোনটি। এখনও এর চাহিদা ফুরায়নি। দুই বছর পার হলেও শীর্ষ বিক্রীত ফোনের তালিকায় এর অবস্থান চতুর্থ। চলতি বছর ফোনটির ১ কোটি ৩ লাখ ইউনিট বাজারে সরবরাহ করা হয়েছে।

শাওমি রেডমি ৬ এ

শাওমির এন্ট্রি লেভেলের ফোনটি আছে তালিকার পঞ্চম স্থানে। প্রথম দুই প্রান্তিকে বাজারে সরবরাহ করা হয়েছে ১ কোটি ইউনিট।

রেডমি নোট ৭

শাওমির প্রথম ৪৮ মেগাপিক্সেলের ফোনটি বাজারে বেশ আলোড়ন তুলেছিলো। এই ফোনেরও ১ কোটি ইউনিট বাজারে সরবরাহ করা হয়েছে।

স্যামসাং জে২ কোর

বাজেট ফোন হিসেবে স্যামসাং জে২ ফোনটিও খুব বেশি পিছিয়ে নেই। বাজারে সরবরাহ করা হয়েছে ফোনটির ৯৯ লাখ ইউনিট।

অপো এ৫

ফোনটির নাম তালিকায় থাকলেও এর কতো ইউনিট বাজারে সরবরাহ হয়েছে তা জানা যায়নি।

আইফোন ১০ এস ম্যাক্স 

বাজারের সবচেয়ে ব্যয় বহুল আইফোনটি কম বিক্রি হয়নি। ফোনটির ৯৬ লাখ ইউনিট বাজারে সরবরাহ করা হয়েছে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ৩০

বাজারে গ্যালাক্সি এ৩০ ফোনটির ৯২ লাখ ইউনিট সরবরাহ করা হয়েছে।

গ্যাজেটস নাউ অবলম্বনে এজেড/ সেপ্টেম্বর ০৮/২০১৯/১৩১৫

আরও পড়ুন –

দ্বিতীয় প্রান্তিকে কে বেশি ফোন বিক্রি করল?

আইফোন বিক্রিতে রেকর্ড

*

*

আরও পড়ুন