vivo Y16 Project

লাইসেন্সহীন পণ্য, তবু বিক্রি বেড়েছে অ্যামাজনে

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর  : কদিন আগেই ই-কমর্সা জায়ান্ট অ্যামাজনে হাজার হাজার লাইসেন্স বিহীন, মেয়াদ উত্তীর্ণ ও লেবেলহীন পণ্য বিক্রির অভিযোগ উঠেছে।

কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্যি, এসব পণ্য কেনার জন্যই গত কিছুদিনে অ্যামাজনে বড় ধরনের অর্ডারও হয়েছে ক্রেতাদের। ফলে বেড়ে গেছে প্লাটফর্মটি থেকে লাইসেন্সহীন পণ্যের বিক্রি।

প্রতিষ্ঠানটি নিজেই এতে অবাক হয়েছে। কারণ, অ্যামাজন দেখেছে তাদের প্লাটফর্মে এমন পণ্য বিক্রি হচ্ছে।

Techshohor Youtube

প্রতিষ্ঠানটি তাদের প্লাটফর্মে লাইসেন্সবিহীন মোবাইল সিগনাল বুস্টার বিক্রি করতেও দেখেছে। যেটি অনেক আগে থেকেই বিক্রি নিষিদ্ধ পণ্য হিসেবে প্রতিষ্ঠানটি তাদের তালিকায় যুক্ত করেছে।

প্রতিষ্ঠানটি তাদের অনুসন্ধানে দেখতে পেয়েছে তাদের প্লাটফর্মে এমন ছয়টি ভেন্ডর সিগনাল বুস্টার বিক্রির বিজ্ঞাপন দিয়েছে এবং বিক্রি করছে। ইতোমধ্যে অ্যামাজন বিষয়টি নিয়ে ক্রেতাদের কাছ থেকে অভিযোগও পেয়েছে।

এই ছয় ভেন্ডরের সবাই চীন থেকে পণ্যটি বিক্রি করছে। এমনকি বিক্রি বাড়াতে প্রতিষ্ঠানগুলো ভুয়া রিভিউ দিয়েছে।

তবে অ্যামাজনের মুখপাত্র দাবি করেছেন, তারা অভিযোগ পাবার সঙ্গে সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ভেন্ডরকে তাদের নীতিমালার কথা বলেছেন। পরে তারা পণ্যগুলো সাইট থেকে সরিয়ে নিয়েছে।

এর আগে গত সপ্তাহে নিউ ইয়র্ক টাইমস এক অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে দাবি করে, অ্যামাজনে অন্তত ৪ হাজার ১৫২ পণ্য পাওয়া গেছে যেগুলো লাইসেন্স বিহীন, মেয়াদ উত্তীর্ণ বা লেবেলহীন।

অনুসন্ধানে পাওয়া অনেক পণ্যে কোনো লেবেল লাগানো ছিল না। ফলে সেসব পণ্যে বিশ্বাস করতে হতো কোন কিছু না দেখেই।

এসব পণ্যের মধ্যে অন্তত ১৫৭টি পণ্য একেবারে নিষিদ্ধ বলেও অনুসন্ধানে স্বীকার করেছে অ্যামাজন।

কিন্তু এতকিছুর পরও অনেক ক্রেতা সেসব লাইসেন্সহীন পণ্যও কিনছেন।

এনগ্যাজেট অবলম্বনে ইএইচ/ সেপ্টে ০২/ ২০১৯/ ১৯০০

আরও পড়ুন –

অ্যামাজনে হাজার হাজার নিষিদ্ধ, ক্ষতিকর, লেবেলহীন পণ্য

ভাগ হচ্ছে অ্যামাজনের সদর দপ্তর

*

*

আরও পড়ুন

vivo Y16 Project