ত্রুটি ধরে হ্যাকারের ২ কোটি ডলারের বেশি আয়

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : হ্যাকার মানেই অনেকে মনে করেন তারা খারাপ কিছু করেন। তবে তারা শুধু নেতিবাচক কাজ করেন না।

হ্যাকাররা অনেক ক্ষেত্রেই বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রযুক্তিগত সমস্যা চিহ্নিত করার কাজ করেন। এসব ইথিক্যাল হ্যাকাররা গত এক বছরে বিভিন্ন সফটওয়্যারের ত্রুটি ধরিয়ে দিয়ে অন্তত দুই কোটি ১০ ডলার আয় করেছে। 

এটি আগের বছরগুলোর চেয়ে অনেকটাই বেশি বলে জানিয়েছে সিঙ্গাপুরভিত্তিক একটি গণমাধ্যম। 

বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে এমন ত্রুটি সনাক্ত করার পরিমাণ বিশ্বব্যাপী আগের চেয়ে ২১৪ শতাংশ বেড়েছে। 

হ্যাকারওয়ান, হ্যাকার পাওয়ার্ড বাই বাগ বাউন্টি প্রোগ্রামের এক রিপোর্টে বলা হয়েছে, যেসব হ্যাকার এই আয় করেছেন তাদের মধ্যে ছয়জন দশ লাখ মার্কিন ডলার আয় করেছে ত্রুটি ধরিয়ে দিয়ে। 

এছাড়াও সাতজন পাঁচ লাখ ডলার করে, ৫০ জন এক লাখ ডলার করে আয় করেছেন।

এসব আয় এসেছে গত এক বছরে। 

২০১৯ সালে এক হাজার ৪০০ প্রতিষ্ঠানের অন্তত এক লাখ ২০ হাজার ত্রুটি ধরিয়ে দিয়েছেন হ্যাকাররা। এর থেকে তারা অন্তত ৬২ মিলিয়ন আয়ের কথা বলা হয়েছে। 

হ্যাকারওয়ানের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মার্টিন মিকোস বলেছেন, তারা হ্যাকারদের তাদের প্লাটফর্মে যুক্ত করেছেন ভালো কিছুর জন্য। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রযুক্তিগত ত্রুটি খুঁজে বের করে সেগুলো সমাধানের জন্য সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোকে সহায়তা করেন তারা। 

তাদের সঙ্গে খুব আগ্রহী অন্তত পাঁচ লাখ হ্যাকার নিবন্ধন করে এসব কাজ করছেন বলেও জানান তিনি। 

এখন প্রতিটি ত্রুটি সনাক্ত করার ফলে গড়ে তিন হাজার ৩৮৪ মার্কিন ডলার পেয়ে থাকে প্রতিষ্ঠানটি। যা গত বছরের চেয়ে ৪৮ শতাংশ বেশি। 

যেসব প্রতিষ্ঠানের বেশি ত্রুটি সনাক্ত করা হয়েয়ে তার মধ্যে বিভিন্ন স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতি, টেলিযোগাযোগ, ভোগ্যপণ্য, ক্রিপ্টোকারেন্সি এবং ব্লকচেইন অন্যতম। 

ইএইচ/ আগস্ট ৩০/ ২০১৯/ ১৪২৪

*

*

আরও পড়ুন