এমএফএস সেবার অনুমোদন পেল আজিয়াটা ডিজিটাল

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর: বাংলাদেশে মোবাইল ফোন অপারেটদের মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সেবার অনুমোদন নেই। ফলে গ্রামীণফোন বা রবির অনেক আগ্রহ থাকার পরেও তারা এই সেবাটি দিতে পারছে না।

তবে রবির মূল কোম্পানি আজিয়াটা গ্রুপের সহযোগী কোম্পানি আজিয়াটা ডিজিটাল বাংলাদেশের ট্রাস্ট ব্যাংকের সঙ্গে মিলে মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সেবায় নামার ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সবুজ সংকেত পেয়েছে।

বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংক আজিয়াটা ডিজিটাল লিমিটেড এবং ট্রাস্ট ব্যাংকের সমন্বয়ে গঠিত ট্রাস্ট আজিয়াটা ডিজিটালকে তাদের অনাপত্তিপত্র দিয়েছে। এখন কোম্পানি গঠন করে এমএফএস সেবায় নামতে পারবে জয়েন্ট ভেঞ্চার কোম্পানিটি।

Techshohor Youtube

তবে বাজারে সেবা নিয়ে আসতে তাদের আরও একটু সময় লাগবে, সেক্ষেত্রে আগামী বছরের প্রথম অর্ধের মধ্যেই এই কোম্পানির সেবা বাজারে আসবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

বর্তমানে দেশে ৫৭টি ব্যাংকের মধ্যে ১৬টি এমএফএস-এর লাইসেন্স আছে। তবে বিকাশ এবং রকেট ছাড়া আর তেমন কারো নাম সেই অর্থে শোনাই যায় না।

২০১১ সালে বিকাশ এবং রকেট একই সঙ্গে সেবা নিয়ে আসে। আর তারপর থেকে গোটা আর্থিক খাতকে নাড়া দিয়ে এগিয়ে চলেছে বিকাশ।

বর্তমানে দেশে এমএফএস-এর সাত কোটি ২১ লাখ নিবন্ধিত গ্রাহক আছে। যার মধ্যে তিন কোটি ২৫ লাখ গ্রাহক নিয়মিত তাদের অ্যাকাউন্টটি ব্যবহার করছেন।

জুন মাসেও এমএফএস অ্যাকাউন্টের মধ্যে ৩১ হাজার ৭০৮ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে। আর মে মাসে এই অংক ছিল ৪২ কোটি ২৩৬ কোটি টাকা।

আইজেডএম/এডি/২০১৯/জুলাই২৮/১১০০

আরও পড়ুন –

এমএফএস হিসাবের ব্যালেন্স জানতেও বসল খরচ

অ্যাপে ব্যাংকিং ঘরে বসেই

*

*

আরও পড়ুন