প্রিমো এইচ৮ প্রো : সস্তায় নচ ডিসপ্লের ফোন

রিয়াদ আরিফিন, টেকশহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দেশীয় স্মার্টফোন নির্মাতা ওয়ালটন সম্প্রতি বাজারে এনেছে ৩ গিগাবাইট র‍্যামের প্রিমো এইচ-৮ প্রো স্মার্টফোন।

দেশে সংযোজিত স্মার্টফোনটিতে রয়েছে নচ ডিসপ্লে, যা এই বাজেটে আকষণীয় ফিচার।

স্মার্টফোনটির ভালো-মন্দ দিকগুলো তুলে ধরার চেষ্টা থেকে এ রিভিউ।

প্রিমো এইচ৮ প্রো’র ফিচার ও কনফিগারেশন

  • ৫.৭১ ইঞ্চি আইপিএস নচ ডিসপ্লে
  • ১.৬ গিগাহার্জ অক্টা-কোর প্রসেসর
  • ৩ জিবি র‍্যাম, ৩২ জিবি রম (স্টোরেজ)
  • ১৩ মেগাপিক্সেল রিয়ার ও ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা
  • ৩৫২০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি
  • ফেইস-আনলক ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার
  • ডুয়াল ফোরজি

আনবক্স

মোড়ক খুললেই নির্দিষ্ট রঙের ফোনের সঙ্গে মিলবে একটি চার্জার ও কেবল, ইউজার ম্যানুয়াল, ওয়ারেন্টি কার্ড ও মাঝারি মানের ইয়ারফোন।

ডিজাইন

প্লাস্টিক বডির ফোনটির ডিজাইনে চমক এনেছে ওয়াটার-ড্রপ নচ ডিসপ্লে। ডিসপ্লে বাদে ফোনটির ডিজাইন অনেকাংশেই আগের মডেল এইচ৮ ডিভাইসের মতো।

ডিভাইসটি ৮.৯ মিলিমিটার পুরুত্বের, যার ওজন ১৫৯ গ্রাম।

ফোনদিকের ডানদিকে রয়েছে ভলিউম রকার ও পাওয়ার বাটন। নিচের দিকে আছে চার্জিং পোর্ট ও স্পিকার। ৩.৫ মিমি ইয়ারফোন জ্যাক রয়েছে একবারে উপরে।

পিছনের দিকে উপরের ডান কোনায় রয়েছে ক্যামেরা ও এলইডি ফ্ল্যাশ, মাঝ বরাবর ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার।

লাল, নীল ও কালো তিন রঙে পাওয়া যাবে ফোনটি।

ডিসপ্লেতে নচ

৫ দশমিক ৭১ ইঞ্চি ডিসপ্লের ফোনে আছে ছোট একটু নচ। এইচডি+ ডিসপ্লেটির রেজুলেশন ১৫২০*৭২০ পিক্সেল এবং পিক্সেল ঘনত্ব ২৯৪। ১৯:৯ মাপের ডিসপ্লেতে বেজেলের পরিমাণ বেশ কম।

বাজেট অনুযায়ী ডিসপ্লের মান সন্তোষজনক হলেও যারা হাই গ্রাফিক্স গেইম বা ভালো গ্রাফিক্সের ভিডিও দেখতে চান তাদের কাছে এ ফোনের ডিসপ্লে কাঙ্খিত পারফরমেন্স দিতে পারবে না।

মাঝারি মানের ক্যামেরা

ফোনটিতে ১৩ মেগাপিক্সেল ব্যাক ক্যামেরা রয়েছে, যেটির অ্যাপারচার এফ ২.০। দিনের আলোতে ছবির মান বাজেট অনুযায়ী সন্তোষজনক হলেও কম আলোতে ছবি ঠিক মনের মতো হবে না।

সেলফি তোলার জন্য রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। বিএসআই সেন্সর ভালো সেলফি তুলতে কাজ করবে। ফ্রন্ট ক্যামেরার ছবির মান মোটামুটি।

চলুন দেখে নেয়া যাক ফোনের  ক্যামেরায় তোলা কিছু ছবি।

এছাড়াও ক্যামেরা অ্যাপে প্যানারোমা, টাইম ল্যাপস, জিআইএফ এর মত কিছু ফিচার পাওয়া যাবে।

পারফরমেন্স

ফোনটিতে ইউনিক এসসি ৯৮৬৩এ মডেলের ১.৬ গিগাহার্জ গতির অক্টাকোর প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে, সঙ্গে থাকছে ৩ গিগাবাইট র‍্যাম। বাজেট অনুয়ায়ী য বেশ সন্তোষজনক পারফরমেন্স দেবে।

গ্রাফিক্স প্রসেসিংয়ে থাকবে পাওয়ার ভি-আর জিই৮৩২২ জিপিউ।

পারফরমেন্স যাচাইয়ের অ্যাপ আনটুটু বেঞ্চমার্কে ফোনটির স্কোর প্রায় ৭০ হাজার। গিকবেঞ্চের কোর সিংগেল ও মাল্টি কোরে যথাক্রমে ৮২৩ ও ৩১৮৩।

ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ৯.০ পাই অপারেটিং সিস্টেমে চলবে। কোনো থার্ড পার্টি লঞ্চার ছাড়াই এতে ব্যবহার করা যাবে থিম। যেগুলো অনলাইন স্টোর থেকে নামিয়ে নেয়া যাবে।

ফোনে ৩২ গিগাবাইট ইন্টারনাল মেমোরি ও ৬৪ গিগাবাইট পর্যন্ত মেমোরি কার্ড ব্যবহারের সুযোগ পাওয়া যাবে।

নিরাপত্তা ফিচার

নিরাপত্তা ফিচার হিসেবে থাকবে ফেইস আনলকিং সুবিধা ও ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার। ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার সন্তোষজনক হলেও ফেইস আনলকিং এ কিছুটা ধীরগতির পারফরমেন্স হতে পারে।

ব্যাটারি লাইফ

ফোনটিতে ৩ হাজার ৫২০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। একবার ফুল চার্জে যা একদিন ব্যবহার নিশ্চিতে সহায়ক হবে।

দাম ও বিক্রয়োত্তর সেবা

৮ হাজার ৪৯৯ টাকা দামের ফোনটি অনলাইনে প্রি-অর্ডার করে কেনা যাবে ৭ হাজার ৪৯৯ টাকায়।

নির্দিষ্ট কিছু শর্ত সাপেক্ষে ৩০ দিনের রিপ্লেসমেন্ট গ্যারান্টি ও এক বছরের বিক্রয় পরবর্তী সেবা মিলবে ফোনটিতে।

এক নজরে ভালো

  • ডিসপ্লেতে নচ
  • ৩২ গিগাবাইট ইন্টারনাল মেমোরি
  • চলনসই ব্যাটারি

এক নজরে খারাপ

  •  ফেইস আনলকিং এ বেশি সময় নেয়
  • ডিসপ্লের রেজুলেশন কম

আরএ/ইএইচ /আগস্ট ৩১/ ২০১৯/ ১৯০৮

*

*

আরও পড়ুন