মোবাইল অ্যাপেই ব্যাংকিং সেবা

Evaly in News page (Banner-2)

রিয়াদ আরিফিন, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে যেসব খাতে প্রযুক্তির ব্যবহার বেড়েছে তার অন্যতম ব্যাংকিং খাত।

ব্যাংকগুলো গ্রাহক বান্ধব সেবা নিশ্চিতে নিয়ে এসেছে নিজস্ব মোবাইল অ্যাপ। ব্যাংকের হিসাবধারীরা অ্যাপ ব্যবহার করে ঘরে বসেই বিভিন্ন ব্যাংকিং সেবা নিতে পারবেন।

তেমন কিছু অ্যাপের খোঁজ নিয়েই প্রতিবেদনের প্রথম পর্ব এখানে। 

ইবিএল স্কাই-ব্যাংকিং

ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেডের গ্রাহকদের জন্য ইবিএল স্কাই ব্যাংকিং অ্যাপটিতে ব্যবহারকারী ব্যাংকে না গিয়ে নিজেই রেজিস্ট্রেশন করে নিতে পারবেন। এজন্য প্রয়োজন হবে ব্যাংক অ্যাকাউন্টের তথ্য কিংবা ক্রেডিট, ডেবিট বা প্রিপেইড কার্ডের তথ্য।

রেজিস্টেশন সম্পন্ন হয়ে গেলে ব্যবহারকারী ইমেইল ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগ ইন করতে পারবেন। অবশ্য পাসওয়ার্ডের পরিবর্তে ফিঙ্গারপ্রিন্ট ব্যবহার করেও লগ ইনের ব্যবস্থা রয়েছে, আর এজন্য প্রথমবার লগ ইন করে ফিঙ্গারপ্রিন্ট যোগ করে নিতে হবে।

অ্যাপটি ব্যবহার করে ব্যাংক হিসাবের তথ্য, লোন অ্যাকাউন্ট, ডিপিএস কিংবা এফডিআরের ব্যালেন্সসহ অন্যান্য তথ্য দেখা যাবে। চাইলে দেখে দেয়া যাবে হিসাবের সংক্ষিপ্ত বিবরনী।

এছাড়া ক্রেডিট বা প্রিপেইড কার্ডের ব্যালেন্স ও লেনদেনের বিবরনীও দেখে নেয়া যাবে অ্যাপ থেকেই।

অ্যাপ দিয়েই অন্য অ্যাকাউন্টে এমনকি অন্য ব্যাংকের অ্যাকাউন্টেও টাকা ট্রান্সফারের সুবিধা পাওয়া যাবে। এছাড়াও টাকা পাঠানো যাবে যেকোন বিকাশ অ্যাকাউন্টে।

মোবাইল রিচার্জসহ অন্যান্য ইউটিলিটি বিল পরিশোধ ও করা যাবে অ্যাপ থেকেই।

অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা গুগল প্লে স্টোরের এই লিংক ও আইওএস ব্যবহারকারীরা অ্যাপ স্টোরের এই লিংক থেকে অ্যাপটি থেকে ইনস্টল করে নিতে পারবেন। অ্যাপটি ব্যবহারে আলাদা কোন মাসিক বা বাৎসরিক চার্জ নেই।

আইবিবিএল আইস্মার্ট

ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের অ্যাপটি রেজিস্ট্রেশন করার জন্য ব্যাংকের সহায়তা প্রয়োজন হবে। ব্যাংক থেকে অ্যাকাউন্ট রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন হলে অ্যাপটিতে ইমেইল ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগ ইন করা যাবে। অ্যাপটি ব্যবহারে  কোন মাসিক বা বাৎসরিক চার্জ নেই।

অ্যাপটি থেকে ব্যাংক হিসাবের লেনদেনদেনের বিবরনীসহ অন্যান্য হালনাগাদ তথ্য দেখা যাবে। জানা যাবে ক্রেডিট কার্ডের হিসাব-নিকাশ।

এছাড়াও মোবাইল রিচার্জসহ অন্যান্য ইউলিটি বিল পরিশোধ করা যাবে অ্যাপ থেকেই।

ফান্ড ট্রান্সফার ফিচার ব্যবহার করে নিজস্ব অ্যাকাউন্ট কিংবা অন্য যেকোন ব্যাংক অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠানোর সুযোগ পাওয়া যাবে। আবার চাইলে চেক বইয়ের আবেদন ও করা যাবে অ্যাপ থেকেই।

আইওএস ও অ্যান্ড্রয়েড উভয় প্লাটফর্মেই অ্যাপটি ব্যবহার করা যাবে। ডাউনলোড করা যাবে এই লিংক দুইটি থেকে আইওস, অ্যান্ড্রয়েড

সিটিটাচ

সিটি ব্যাংক লিমিটেডের অ্যাপটি বাংলা ও ইংরেজি উভয় ভাষায় ব্যবহার করার সুযোগ রয়েছে। ব্যাংকে না গিয়েই ব্যাংক হিসাবের তথ্য দিয়ে এটিতে রেজিস্টেশন করে নেয়া যাবে।

ব্যাংক হিসাব, ক্রেডিট কার্ডের তথ্যের পাশাপাশি অ্যাপটি ব্যবহার করে অন্য কাউকে টাকাও পাঠানো যাবে। এমনকি টাকা পাঠানো যাবে যেকোন বিকাশ অ্যাকাউন্টে।

চাইলে অ্যাপ থেকে নতুন ফিক্সড ডিপোজিট কিংবা ডিপিএস অ্যাকাউন্ট খোলা যাবে ব্যাংকে না গিয়েই।

আকর্ষনীয় ফিচার হিসেবে থাকছে ‘ক্যাশ বাই কোড’ অপশন। এটি দিয়ে ব্যাংক হিসাব নেই এমন কোন ব্যক্তিকে টাকা পাঠানো যাবে গোপন নাম্বারের সাহায্যে। সেই নম্বর ব্যবহার করে সিটি ব্যাংকের যেকোন এটিম বুথ থেকে কাঙ্খিত ব্যক্তি নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা তুলে নিতে পারবেন।

অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা এই লিংক থেকে এবং আইওএস ব্যবহারকারীরা এই লিংক থেকে অ্যাপটি নামিয়ে নিতে পারবেন।

নেক্সাস পে

ডাচ বাংলা ব্যাংক লিমিটেডের এই অ্যাপ অ্যান্ড্রয়েডের জন্য এই লিংক ও আইওএসে এই লিংক হতে ইনস্টল করে নেয়া যাবে। এর জন্য ফোন নম্বর ও ইমেইল দিয়ে প্রথমে রেজিস্ট্রেশন করে নিতে হবে। অ্যাপ ব্যবহারে আলাদা কোন চার্জ নেই।

এরপর অ্যাপে লগ ইন করে ডাচ বাংলা ব্যাংকের একাধিক ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড এবং রকেট অ্যাকাউন্ট যোগ করে নেয়া যাবে।

অ্যাপটি থেকে দেশজুড়ে ১০ হাজারের বেশি দোকানে কেনাকাটার বিল পরিশোধ করা যাবে কিউআর কোড স্ক্যান করেই। শর্তসাপেক্ষে মিলবে ক্যাশব্যাক সুবিধাও।

এছাড়া অ্যাপ থেকেই টাকা পাঠানো যাবে অন্য হিসাব কিংবা কার্ডে। অ্যাকাউন্টের ব্যালেন্স, লেনদেন বিবরনী দেখা ছাড়াও কার্ডবিহীন এটিম বুথ হতে টাকা উত্তোলনও করা যাবে অ্যাপের সাহায্যে।

পরবর্তী কিস্তিতে আরও ব্যাংকের সেবা নিয়ে প্রতিবেদন আসছে।     

আরএ/ইএইচ /আগস্ট ২২/ ২০১৯/১১১০

*

*

আরও পড়ুন