বিটিসিএলও অ্যাপে সেবা দিতে চায়

btcl-logo-techshohor

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : অন্যান্য আইপি টেলিফোনি সার্ভিস প্রোভাইডারদের (আইপিটিএসপি) মতো সরকারি ল্যান্ডফোন কোম্পানি বিটিসিএলও অ্যাপের মাধ্যমে ভয়েস কল সেবা দিতে চায়।

বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন্স কোম্পানি লিমিটেড (বিটিসিএল) এ জন্য সম্প্রতি বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) কাছে অনুমোদন চেয়ে আবেদন করেছে।

গত বছর সবার আগে মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে ল্যান্ডফোনের ভয়েস কল সেবা চালু করে সাড়া ফেলে নভোকমের সহযোগী প্রতিষ্ঠান ইন্টারক্লাউড লিমিটেড।

তাদের ব্রিলিয়ান্ট অ্যাপের মাধ্যমে এখন দিনে ১০ লাখ মিনিটেরও বেশি কল আদান-প্রদান হচ্ছে।

দেশের টেলিকম খাতের জন্য অভিনব এ সেবায় মোবাইল অ্যাপ ব্যবহার করে যে কোনো মোবাইল বা ল্যান্ডফোনে ৩০ পয়সা মিনিটে কল করা যায়।

অন্যদিকে আইপি ফোন হতে এ অ্যাপে হোয়াটসঅ্যাপ-ভাইবারের মতো কেবল ইন্টারনেট ব্যবহার করে নিখরচায় কথা বলা যায়।

মূলত কম খরচের কারণে গ্রাহকদের মধ্যে সেবাটি জনপ্রিয় হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

এর মধ্যে গত বছরের ডিসেম্বরে আরও চার কোম্পানি আম্বার আইটি, বিডিকম অনলাইন, মেট্টোনেট বাংলাদেশ ও লিংক থ্রি টেকনোলজি লাইসেন্স পায়। ফেব্রুয়ারিতে অনুমোদন পায় আইসিসি কমিউনিকেশন্স।

অন্যদিকে বিটিসিএল ছাড়াও আরও সাত কোম্পানি নতুন করে আবেদন করেছে বিটিআরসির কাছে।

সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, দেশীয় উদ্যোক্তাদেরকে সুযোগ দিতে চায় কমিশনও। তবে মোবাইল ফোন অপারেটররা এ সেবার বিরোধীতা করছে।

এ অ্যাপ চালুর ক্ষেত্রে প্রধান শর্ত কোনো বিদেশি কল (ইনকামিং ও আউট গোয়িং) পরিচালনা করা যাবে না। তা ছাড়া সেবা দেওয়ার ক্ষেত্রে অবশ্যই বিটিআরসির আইনগত ইন্টারসেপশন মেনে চলতে হবে।

একই সঙ্গে তাদেরকে প্রতিটি গ্রাহকের তথ্য সংগ্রহে রাখতে হবে এবং পাঁচ কোটি টাকা ব্যাংকে জামানত রেখে সেবা পরিচালনা করতে হবে।

জেডএ/আরআর/১১ আগস্ট/২০১৯/১৪.২৩

আরও পড়ুন –

আরও একটি কলিং অ্যাপের অনুমোদন দিল বিটিআরসি

দেশি অ্যাপে কথা বলায় মোবাইল অপারেটরগুলোর আপত্তি

*

*

আরও পড়ুন