রেকর্ডিং শুনবে না তারা

AppleSiri-techshohor

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : রিভিউয়াররা এখন থেকে আর ব্যবহারকারী ও অ্যালেক্সার কথোপকথন শুনবেন না।

ভার্চুয়াল অ্যাসিস্ট্যান্ট অ্যালেক্সার সঙ্গে কী কথা হলো তার রেকর্ডিং অ্যামাজন কর্মীদেরকে শোনানো হবে কিনা সে সিদ্ধান্ত নেওয়ার সুযোগ পাবেন ব্যবহারকারীরা।

ইকো স্পিকারে থাকা ভয়েস অ্যাসিস্ট্যান্টের কমান্ড অনুসরণ করার দক্ষতা বাড়াতে ও ভাষা শনাক্তকারী এআইয়ের পারফরমেন্স উন্নত করতে কথোপকথনের রেকর্ডিং শুনতেন রিভিউয়াররা।

শুধু অ্যামাজন নয়, সিরির মাধ্যমেও ব্যবহারকারীর সব কথোপকথন শুনছে অ্যাপলের কর্মীরা। গত সপ্তাহে সংবাদ মাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান জানায়, ব্যবহারকারীর স্বাস্থ্য কিংবা যৌন জীবন সম্পর্কিত তথ্যও শুনছে চুক্তিভিত্তিক কাজে নিয়োজিত কর্মীরা।

এ খবর প্রকাশের পর সাময়িকভাবে সিরির ভয়েস রেকর্ডিংগুলো শোনার কার্যক্রম বন্ধ রেখেছে অ্যাপল। শীঘ্রই সফটওয়্যার আপডেটের মাধ্যমে রেকর্ডিং শোনা যাবে কিনা সে বিষয়ে অনুমতি নেবে অ্যাপল।

এদিকে, ইউরোপে জার্মান প্রাইভেসি অথোরিটি গুগলকে রেকর্ডিং শোনার কার্যক্রম তিন মাসের জন্য বন্ধ রাখতে নির্দেশ দিয়েছে।

তবে গুগল জানিয়েছে, জুলাইয়ে বিষয়টি নিয়ে বেশ সমালোচনা হওয়ার পর তারা রেকর্ডিং শোনার কাজ বন্ধ করেছে।

গত মাসে রেকর্ডিং শোনার বিষয়টি ফাঁস হলে গুগল জানায়, গুগল অ্যাসিস্ট্যান্টকে ব্যবহারকারীরা কী বলে তার সব কিছুই শোনেন চুক্তিভিত্তিতে কাজ করা কর্মীরা। রেকর্ডিং শুনে শুনে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্টের ভাষা, উচ্চারণ ও আঞ্চলিক ভাষা শনাক্তকরণের দক্ষতা বাড়ানো হয়।

কর্মীরা অবশ্য জানতে পারেন না কোন রেকর্ডিং কোন অ্যাকাউন্টের। তবে রেকর্ডিংগুলোতে নাম, ঠিকানা ও অন্যান্য ব্যক্তিগতও তথ্য থাকে।

ভেঞ্চারবিট অবলম্বনে এজেড/ আগস্ট ০৪/২০১৯/১১৪৬

আরও পড়ুন –

যা বলছেন, সব শুনছেন অ্যামাজন কর্মীরা

*

*

আরও পড়ুন