হ্যাকারের হাতে ১০ কোটি ৬০ লাখ মানুষের তথ্য

ছবি : রয়টার্স

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : আর্থিক সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ক্যাপিটাল ওয়ানের ১০ কোটি ৬০ লাখ গ্রাহকের তথ্য হাতিয়ে নিয়েছেন এক হ্যাকার।

মার্কিন আর্থিক সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানটি অনেক আগেই হ্যাকের শিকার হয়েছে। কিন্তু বিষয়টি তারা জানায়নি। পুলিশ সেই সন্দেহভাজন হ্যাকারকে আটক করার পর ক্যাপিটাল ওয়ান তাদের হ্যাকিংয়ের বিষয়টি প্রকাশ করেছে।

হ্যাকার যেসব তথ্য হাতিয়ে নিয়েছেন তার মধ্যে রয়েছে প্রতিষ্ঠানটিতে যারা ক্রেডিট কার্ডের জন্য আবেদন করেছিলেন তাদের নাম, ইমেইল, ঠিকানা, জন্ম তারিখ, ফোন নম্বরসহ আরও কিছু তথ্য।

অবশ্য হ্যাকের ঘটনা ক্যাপিটাল ওয়ান গত ১৯ জুলাই জানতে পারে। প্রতিষ্ঠানটি দাবি করছে, যারা ক্রেডিট কার্ডের জন্য আবেদন করেছিল তাদের অ্যাকাউন্ট নম্বর নিতে পারেনি হ্যাকাররা।

মার্কিনিরা যেসব প্রতিষ্ঠানের ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করেন তার মধ্যে বেশিরভাগই ক্যাপিটাল ওয়ানের। প্রতিষ্ঠানটি এক বিবৃতি দিয়ে বলেছে, বেহাত হওয়া তথ্যের মধ্যে কানাডার গ্রাহক ৬০ লাখ। বাকি ১০ কোটি গ্রাহকই যুক্তরাষ্ট্রের।

তবে যুক্তরাষ্ট্রের ১০ কোটির মধ্যে এক লাখ ৪০ হাজার জনের এবং কানাডার ১০ লাখ লোকের সোশ্যাল সিকিউরিটি নম্বর এবং যুক্তরাষ্ট্রের ৮০ হাজার মানুষের অন্য ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নম্বর হ্যাকরদের হাতে পড়ার কথা জানিয়েছে ক্যাপিটাল ওয়ান।

ক্যাপিটাল ওয়ানের চেয়ারম্যান রিচার্ড ফেয়ারব্যাংক এক বিবৃতিতে বলেছেন, তারা এই ভেবে স্বস্তি পাচ্ছেন যে, অপরাধী ধরা পড়েছে।

এছাড়াও তারা মনে করছেন না, যেসব তথ্য বেহাত হয়েছে সেগুলো দিয়ে কোন জালিয়াতি করা হয়েছে। প্রতিষ্ঠানটি অবশ্য বলেছে, তারা আক্রান্ত গ্রাহকদের লেনদেনে নজরদারি রাখবে এবং অন্য সবধরনের সেবা দিতে প্রস্তুত থাকবে।

পুলিশের হাতে আটক পেইজ টমসন নামের ৩৩ বছর বয়সী ওই নারী সিয়াটলে কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কাজ করতেন। অবশ্য এই অপরাধ প্রমাণ হলে তার সর্বোচ্চ ৫ বছরের কারাদণ্ড এবং আড়াই লাখ ডলার জরিমানা হতে পারে।

রয়টার্স অবলম্বনে ইএইচ/ জুলাই ৩০/ ২০১৯/ ১৭৩৭

আরও পড়ুন –

সাইবার নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠানই হ্যাকারের কব্জায়!

হ্যাকারের খপ্পরে অমিতাভ

হ্যাকারদের ছয় লাখ ডলার মুক্তিপণ দিচ্ছে ফ্লোরিডা

*

*

আরও পড়ুন