ফোর্টনাইট চ্যাম্পিয়ন হলো মার্কিন কিশোর

fortnite-world-cup-techshohor

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ফোর্টনাইট ওয়ার্ল্ডকাপ চ্যাম্পিয়ন এখন ১৬ বছর বয়সী এক মার্কিন কিশোর। তার নাম কাইল গিয়ার্সডফ। গেইমিংয়ের দুনিয়ায় সে পরিচিত বোগা নামে।

একক প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়ে পুরস্কার হিসেবে কাইল পেয়েছে ৩ মিলিয়ন ডলার (৩০ লাখ ডলার)। শুধু অর্থ নয়, ফোর্টনাইট চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর ইউটিউব ও টুইটারে তার অনুসারীর সংখ্যাও হু হু করে বাড়ছে। এছাড়াও, সেন্টিনেলস নামের একটি লস অ্যাঞ্জেলেসভিত্তিক ইস্পোর্টস অরগানাইজেশের সঙ্গে চুক্তি করেছে সে।

কাইল জানিয়েছে, পুরস্কার হিসেবে পাওয়া অর্থের প্রায় পুরোটাই সে জমাবে। তবে ট্রফি রাখার জন্য সে একটি টেবিল কিনবে।

দ্বিতীয় স্থানে থাকা ২৪ বছর বয়সী হ্যারিসন চ্যাং পেয়েছন ১ দশমিক ৮ মিলিয়ন ডলার (১৮ লাখ ডলার)। পুরো টুর্নামেন্টে গেইমারদের জন্য প্রাইজমানি ছিলো ৩০ মিলিয়ন।

এর আগে ইস্পোর্টসের কোনো টুর্নামেন্টে গেইমারদেরকে এতো বড় অঙ্কের পুরস্কার কখনও দেওয়া হয়নি।

নিউইয়র্কের আর্থার অ্যাশ স্টেডিয়ামে ফোর্টনাইট চ্যাম্পিয়ানশিপটি অনুষ্ঠিত হয়েছে। স্টেডিয়ামের দর্শকদের পাশাপাশি অনলাইনে ১০ লাখেরও বেশি মানুষ ওয়ার্ল্ডকাপ ফাইনালটি দেখেছে।

অনলাইনে ফোর্টনাইট ওয়ার্ল্ডকাপে খেলতে ১০ সপ্তাহ ধরে ৪ কোটি গেইমার প্রতিযোগিতা করে। এর মধ্যে ফোর্টনাইট ফাইনালে ১০০ গেইমারকে টেক্কা দিয়ে বিজয়ী হয়েছে কাইল।

৩০টি দেশের গেইমাররা এতে অংশ নিয়েছে। এর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র থেকে অংশ নিয়েছে ৭০ গেইমার, ফ্রান্স থেকে অংশ নিয়েছে ১৪ গেইমার এবং যুক্তরাজ্য থেকে অংশ নিয়েছে ১১ গেইমার।

ফোর্টনাইট গেইমটিতে দলবদ্ধভাবে বা একাই একটি ম্যাচের শেষ পর্যন্ত টিকে থাকতে হয়। একটি ম্যাচে একসঙ্গে ১০০ জন পর্যন্ত গেইমার অংশ নিতে পারে।

গেইমটিতে নিবন্ধিত গেইমারের সংখ্যা ২০ কোটি। ফ্রিতেই গেইমটি ডাউনলোড করা যায় তবে ইন অ্যাপ পার্চেসের জন্য গেইমারদেরকে টাকা খরচ করতে হয়।

বিবিসি ও সিএনএন অবলম্বনে এজেড/ জুলাই ২৯/২০১৯/১১৫০

আরও পড়ুন –

ফোর্টনাইট খেলে লাখপতি কিশোর

পাবজি বন্ধ চীনে, বিকল্প দেশাত্মবোধক গেইম

বছর মাতানো সাত গেইম

*

*

আরও পড়ুন