টিম অলিকের পাশে পলক

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন টিম অলিককে সব রকম সহযোগিতার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

দু’দফায় ভিসা না হওয়ায় এবার নাসার সম্বর্ধনা অনুষ্ঠানে যেতে পারেনি দলটি। এ অবস্থায় পলক দলটিকে নিজের সঙ্গে সাক্ষাতে আমন্ত্রণ জানান এবং অনুপ্রেরণা দেন।

সিলেট জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে শনিবার অনুষ্ঠিত ওই সাক্ষাতে পলক অলিক টিমের স্বপ্ন পূরণে আইডিয়া ও আইসিটি বিভাগ পাশে থাকবে বলে জানান।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাইটেক পার্কে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টারসহ বেশ কিছু অবকাঠামোগত নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করতে সিলেট গিয়েছিলেন পলক।

টিম অলিকের সঙ্গে সাক্ষাতকালে পলক বলেন, রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে জোর প্রতিবাদ জানানো দরকার ইউএস সরকারের কাছে। দলটিকে তাদের নাসা আমন্ত্রণ জানিয়েছে। ভিসার বিষয়ে আমাদের এখানে কিছু করার ছিল না।

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে নিজে বিষয়টি তুলে ধরবেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, যেতে না পারা টিম অলিককে নতুন করে আমন্ত্রণ জানাবে নাসা। এবার অনেক আগে হতে চেষ্টা করা হবে যেন দলটিকে পাঠানো যায়।

পলক জানান, আমেরিকায় কেনেডি স্পেস সেন্টারে দলটি তাদের স্বপ্নের অ্যাপ্লিকেশনটি তুলে ধরতে চেয়েছিল। কিন্তু তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ হতে সকল সহযোগিতা করার পরেও আমেরিকান দূতাবাস নির্দিষ্ট সময়ে তাদের ভিসা না দেয়ায় তাদের সেই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করা হয়নি। এ জন্য আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করেন তিনি। 

এ সময় টিম অলিকের সদস্যরা আত্মবিশ্বাসী মনোবল প্রকাশ করেন যে, সরকারের তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ এবং তরুণ মন্ত্রীরা সবসময় উদ্যোক্তা ও তরুণ উদ্ভাবকদের পাশে আছে।

নাসার ওই অনুষ্ঠানে টিম অলিক আসতে না পারায় দু:খ প্রকাশ করেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় এই মহাকাশ সংস্থার শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তারা।

তারা জানিয়েছেন, যেহেতু টিম অলিক এ বছর আসতে পারেনি তাই নাসা থেকে টিম অলিককে আগামী বছরের (২০২০) বিজয়ী দলগুলোর সঙ্গে আরও একবার সংবর্ধনা দেওয়া হবে।

ইতোমধ্যে দলটি নাসার এবারের অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যোগ দিয়েছে। এতে নিজেদের প্রকল্প ভিডিও প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে তুলে ধরে তারা।

‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ ২০১৮’ প্রতিযোগিতায় বিশ্বের দুই হাজার ৭২৯টি দলের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে চ্যাম্পিয়ন হয় সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) টিম অলিক। দলটি বেস্ট ডেটা ইউটিলাইজেশন ক্যাটগরিতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন।

পরে দলটিকে এবং তাদের মেন্টরদের মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসায় যাবার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়। কিন্তু দু’দুবার চেষ্টার পরও যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা না পাওয়ায় নাসার ওই অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পারেনি তারা।

নাসার এবারের এই অনুষ্ঠানে তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের ভিডিও বক্তব্য উপস্থাপন করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন নাসার আর্থ সায়েন্স ডিভিশনের ব্যবস্থাপক ড. সোবহানা এস গুপ্তা, অ্যারো স্পেইস ইঞ্জিনিয়ার ক্যালি বার্ক, ইনফরমেশন টেকনোলজি স্পেশালিস্ট  অ্যান্ড্রু ডেনিও।

এছাড়া ছিলেন নাসার উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা, অন্য ক্যাটাগরির বিজয়ী ফিলিপিন, কানাডা, স্পেন, অস্ট্রেলিয়া ও আর্জেন্টিনার দল।

অনুষ্ঠানে ড. সোবহানা এস গুপ্তা বিস্তারিত প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে দেখান কি করে সামনের দিনগুলোতে চ্যাম্পিয়ন প্রজেক্টগুলো ফান্ড রেইজ ও স্কেলেবিলিটিতে কাজ করবে।

অ্যান্ড্রু ডেনিও আলোচনা করেন উইনিং টিমর সদস্যরা কিভাবে ভবিষ্যতে নাসায় চাকরি এবং ইন্টার্নশিপে কাজ করতে পারে। তিনি নিজেও প্রাক্তন নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ বিজয়ী বলে উল্লেখ করেন।

এডি/জুলাই২৮/২০১৯/১৩৩০

*

*

আরও পড়ুন