নিষিদ্ধের মুখ থেকে এসে ভারতে ডেটা সেন্টার করছে টিকটক

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ভারতে কিছুদিন আগেই টিকটক নিষিদ্ধ করার জন্য জোর চেষ্টা চলেছে। কিন্তু শেষ পযর্ন্ত আর নিষিদ্ধ হয়নি অ্যাপটি। 

নতুন খবর হলো টিকটক এবার ভারতে ডেটা সেন্টার স্থাপন করছে। 

চীনের বাইটড্যান্সের একটি অ্যাপ টিকটক বিশ্বের সবচেয়ে বেশি ব্যবহার হয় ভারতে। 

ভারতে এটিই প্রথম কোন সামাজিক মাধ্যম প্রতিষ্ঠানের ডেটা সেন্টার স্থাপন করা বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে টিকটক। 

প্রতিষ্ঠানটি বিবৃতিতে বলেছে, ভারত তাদের জন্য অন্যতম শক্তিশালী বাজার। সেখানে তাদের ব্যবহারকারীও সবচেয়ে বেশি। ফলে সেই বাজারকে স্বাভাবিক ভাবেই গুরুত্ব দিচ্ছে টিকটক। 

কিশোর-তরুণ, বুড়ো-বুড়ি এমনকি শিশুরাও টিকটক ব্যবহার শুরু করেছে ভারতে। ফলে অ্যাপটির প্রভাবে দেশটিতে যৌনতাও ছড়িয়ে পড়ছে বলে অভিযোগ এনে মাদ্রাসের আদালত টিকটককে নিষিদ্ধ করতে কেন্দ্রকে অনুরোধ করে। 

পরে আদালতের পর্যবেক্ষণ, বিশেষজ্ঞের মতামত নিয়ে অ্যাপটি শেষ পর্যন্ত নিষিদ্ধ করা হয়নি আর। তবে টিককটকে এসব বিষয়ে কঠোর হবার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। 

আগামী ছয় থেকে এক বছরের মধ্যে টিকটক ভারতে ডেটা সেন্টার স্থাপনের কাজ শুরু করবে। সেটি স্থাপন করতে টিকটকের এক বিলিয়ন ডলারের মতো খরচ করবে আগামী তিন বছরে। 

ভারত সরকার নিজের দেশের প্রযুক্তি ব্যবহারকারীদের তথ্য বাইরের দেশে যাতে চলে না যায় সেদিকে খুব বেশি শক্ত অবস্থান নিয়েছে। ফলে শতকোটি ব্যবহারকারীর মাইলফলকে পৌঁছানো টিকটকও এবার ভারতে ডেটা সেন্টার স্থাপন করছে। 

ভারতে এখন টিকটকের ব্যবহারকারী ২০ কোটির বেশি। যেখানে অন্তত ১৭টি ভাষায় অ্যাপটি ব্যবহার করেন ব্যবহারকারীরা। 

৭৫ বিলিয়ন ডলারের প্রতিষ্ঠানটি বিশ্বে এখন সবচেয়ে দামি স্টার্টআপ হিসেবে উঠে এসেছে। 

বিজনেস স্ট্যাডার্ন্ড অবলম্বনে ইএইচ/ জুলাই ২১/ ২০১৯/ ২০২০

আরও পড়ুন – 

টিকটক নিষিদ্ধের পক্ষে ৮০% ভারতীয়

টিকটককে ঠেকাতে আসছে ফেইসবুকের মিউজিক অ্যাপ

ভারতে বন্ধ টিকটক

*

*

আরও পড়ুন