কম্পিউটারের প্রযুক্তি সব বয়সীদের উপযোগী হতে হবে : জব্বার

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : যে কোম্পানিই ল্যাপটপ বা কম্পিউটার তৈরি করুক তাদেরকে শিশু থেকে শুরু করে সব বয়সীদের উপযোগী প্রযুক্তি ব্যবহার করার কথা বলেছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

তিনি বলেন, সবাই ব্যবহার করতে না পারলে যত নামীদামি প্রতিষ্ঠানই হোক বাজার ধরতে পারবে না। ল্যাপটপের বাজার দিন দিন বাড়ছে। এই বাজার ধরতে হলে অবশ্যই সবাইকেই গুরুত্ব দিতে হবে।

মন্ত্রী রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি)  তিন দিনের ইসেট ল্যাপটপ মেলা ২০১৯-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন।

মেলাটি সকাল ১০টার সময় দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হলেও এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হয় বিকেলে।

প্রধান অতিথি মোস্তাফা জব্বার বলেন, একটা সময় ছিল যখন দেশে কম্পিউটার নিয়ে মেলা করতে হয়েছে মানুষকে এর সঙ্গে পরিচিত করানোর জন্য। কিন্তু এখন তারা আসে নতুন আরও কি প্রযুক্তি আসলো তা দেখতে। কতটা পরিবর্তন হয়েছে এ থেকেই বোঝা যায়।

বাংলাদেশ এখন ল্যাপটপের মতো পণ্য শুধু তৈরিই করে না বরং রপ্তানি করে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, আমরা ধীরে ধীরে স্বয়ংসম্পন্ন হচ্ছি। এখন রপ্তানি অল্প করে হলেও শুরু করেছি। এটি বরং বাড়বেই।

তিনি বলেন, এখন ম্যাকবুক বা আইফোন তৈরি হয় চীনে। দক্ষিণ কোরিয়ার অনেক পণ্যই তৈরি হচ্ছে ভিয়েতনামে। কর্পোরেট প্রতিষ্ঠানের কোন দেশ নেই। তাই আমরাও ব্র্যান্ডগুলোকে আহ্বান জানাই বাংলাদেশেও তারা পণ্য তৈরি করুক।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন স্টার টেক অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেডের ডিরেক্টর মাহাবুব আলম রাকিব, আসুস গ্লোবাল প্রাইভেট লিমিটেডের কান্ট্রি গ্লোবাল ম্যানেজার আশিক খান, ডেল বাংলাদেশের মার্কেটিং ম্যানেজার প্রতাপ সাহা, এইচপি বাংলাদেশের ডিস্ট্রিবিউশন ও রিটেল বিজনেস ইমরান খান, লেনোভোর ম্যানেজার সেলস রাশেদ কবির ও এক্সপো মেকারের কৌশলগত পরিকল্পনাকারী মুহম্মদ খান।

এক্সপো মেকারের আয়োজনে ২১তম এই ল্যাপটপ মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন ডেল, এইচপি, লেনোভো, আসুসের প্রতিনিধি ও ইসেটের পরিবেশক স্টার টেক অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাহবুব আল রাকিব।

তিন দিনের ল্যাপটপ মেলাটি চলবে শনিবার পর্যন্ত।

এবারের মেলার প্রধান পৃষ্ঠপোষক ইসেট। সহ-পৃষ্ঠপোষক হিসেবে রয়েছে আসুস, ডেল, এইচপি, লেনোভো। সাইবার সিকিউরিট পার্টনার হিসেবে রয়েছে ক্যাসপারস্কি। এ ছাড়াও, পার্টনার হিসেবে রয়েছে তথ্যপ্রযুক্তি ও টেলিকম বিষয়ক বিশেষায়িত নিউজ পোর্টাল টেকশহরডটকম ও এডুমেকার।

প্রতিবারের মতো এবারও মেলার অফিসিয়াল ফেইসবুক পেইজে কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে। কুইজে অংশ নিয়ে পুরস্কার জিতে নেবার সুযোগও রয়েছে।

প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেলা চলবে। মেলার প্রবেশ মূল্য ৩০ টাকা। তবে স্কুলের শিক্ষার্থীরা ইউনিফর্ম পরিহিত অবস্থায় কিংবা পরিচয়পত্র প্রদর্শন করে বিনামূল্যে প্রবেশ করতে পারবে। প্রতিবন্ধীরাও বিনামূল্যে প্রবেশের এই সুযোগ পাবে।

প্রদর্শনীর সব আপডেট ও খবর মেলার অফিসিয়াল ফেইসবুক ইভেন্ট পেইজ এবং টেকশহরডটকমে পাওয়া যাবে।

ইএইচ /জুলাই ১১/ ২০১৯/১৯০০

*

*

আরও পড়ুন