স্মার্টফোন অতিরিক্ত গরম হলে যা করবেন

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : অধিকাংশ ব্যবহারকারীই স্মার্টফোন গরম হয়ে যাওয়ায় সমস্যার সম্মুখীন হন।

নানা কারণে স্মার্টফোন গরম হয়ে যায়। মাল্টিটাস্কিং কিংবা দীর্ঘ সময় ধরে হাই রেজুলেশনের গেইম খেললে সব স্মার্টফোন গরম হয়ে যাবে, এটাই স্বাভাবিক। এসব ক্ষেত্রে কিছুক্ষণ ব্যবহার বন্ধ রাখলেই ফোন আবার স্বাভাবিক তাপমাত্রায় ফিরে আসে।

তবে অনেক ক্ষেত্রে হালকা কাজ করার সময়ও স্মার্টফোন গরম হয়ে যায়। আবার অনেক সময় এই গরম হয়ে যাওয়ার মাত্রা এতটাই বেশি থাকে যে স্মার্টফোনটি ধরা মাত্র হাতে তীব্র গরম অনুভূত হয়।

চাইলে স্মার্টফোনের অতিরিক্ত গরম হয়ে যাওয়াকে নিয়ন্ত্রণ করা যায়। কীভাবে এই কাজ করবেন তার আদ্যোপান্ত থাকছে এই প্রতিবেদনে।

ম্যালওয়্যারের আক্রমণ দায়ী

স্মার্টফোন অতিরিক্ত গরম হয়ে যাওয়ার পেছনে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ম্যালওয়্যারের আক্রমণ দায়ী। গুগল প্লে কিংবা অ্যাপস্টোর ব্যতীত অন্য কোনো সোর্স থেকে অ্যাপ্লিকেশন ইন্সটল করা কিংবা শেয়ারিংয়ের মাধ্যমে অ্যাপ নেয়ার কারণে ম্যালওয়্যারের আক্রমণ হয়ে থাকে। 

আগে থেকেই কিছু নিয়ম মানলে ম্যালওয়্যারের আক্রমণ থেকে বাঁচা যায় কিংবা আক্রান্ত হলে তা থেকে মুক্ত হওয়া যায়। এটি সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানা যাবে টেকশহরডটমের এই প্রতিবেদনে। 

আরও পড়ুনঃ অ্যান্ড্রয়েডে ম্যালওয়্যার থেকে বাঁচার উপায়

থার্ড পার্টি অ্যাপের ক্ষেত্রে সর্তকতা 

স্মার্টফোনে দিয়ে নানা ধরনের কাজ সারতে আমরা হরেক রকম অ্যাপ ব্যবহার করি। কিন্তু এমন কিছু থার্ড পার্টি অ্যাপ রয়েছে যেগুলো অতিরিক্ত মাত্রায় বিজ্ঞাপন দেখায় কিংবা সবসময়ই ব্রাকগ্রাউন্ডে চালু অবস্থায় থাকে। এর ফলে স্মার্টফোন ব্যবহার না করলেও গরম হয়ে যায়।

এই ঝামেলা এড়াতে অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করার আগে প্লেস্টোর থেকে সেটির রেটিং ও ব্যবহারকারীদের রিভিউ জেনে নিতে হবে। আর এই ধরনের কোনো অ্যাপ ইন্সটল করে ফেললে তা দ্রুত রিমুভ করে ফেলতে হবে।

এছাড়া, স্মার্টফোনে অপ্রয়োজনীয় অ্যাপ না রাখাই ভালো। এজন্য যেসব অ্যাপ সচরাচর কাজে লাগে না সেগুলো আনইন্সটল করতে হবে।

ভাল মানের চার্জার ব্যবহার 

স্মার্টফোন ভেদে চার্জিং সক্ষমতার পার্থক্য থাকে। বর্তমানে স্মার্টফোন নির্মাতারা মডেল ভেদে সাধারণত ১ থেকে ৩ অ্যাম্পিয়ার চার্জিং সক্ষতার চার্জার প্রদান করেন স্মার্টফোনের সঙ্গে। তাই স্মার্টফোন চার্জ দেয়ার ক্ষেত্রে অরিজিনাল চার্জার ব্যবহার করতে হবে। কোনভাবেই এক স্মার্টফোনের চার্জার অন্য মডেলের স্মার্টফোনে ব্যবহার করা উচিৎ নয়। কোন কারণে অরিজিনাল চার্জার অকেজো হয়ে গেলে কিংবা হারিয়ে গেলো, আগের চার্জারের সমান সক্ষমতার চার্জার কিনে নিতে হবে। এক্ষেত্রে অনুমোদিত সার্ভিস সেন্টার থেকে আসল চার্জার নেয়া যেতে পারে।

নিম্নমানের কিংবা অন্য সক্ষমতার চার্জার ব্যবহার করলেও ফোন অতিরিক্ত গরম হয়ে যায়।

চার্জে দিয়ে ফোন ব্যবহার না করা

স্মার্টফোনে চার্জে লাগানো অবস্থায় স্বাভাবিকের চাইতে কিছুটা বেশি গরম হতে পারে। চার্জে থাকা অবস্থায় স্মার্টফোন ব্যবহার থেকে বিরত থাকতে হবে।

এছাড়া, স্মার্টফোন চার্জে লাগানো অবস্থায় তা বিছানা, সোফা ইত্যাদি নরম জায়গার উপর না রেখে টেবিল জাতীয় শক্ত কিছুর উপর রাখতে হবে। 

লম্বা সময় ধরে একটানা গেইম না খেলা

একটানা অনেক সময় ধরে হাই রেজুলেশনের গেইম খেললে স্মার্টফোন অতিরিক্ত গরম হয়ে যেতে পারে। এজন্য টানা গেইম না খেলে কিছুক্ষণ পরপর নির্দিষ্ট সময় বিরতি নেয়া যেতে পারে। যা স্মার্টফোনের ধীর হয়ে যাওয়া কিংবা অতিরিক্ত গরম হয়ে যাওয়াকে ঠেকাবে।

অতিরিক্ত রোদ এড়িয়ে চলা

গ্রীষ্মকালে অতিরিক্ত রোদের মধ্যে স্মার্টফোন ব্যবহার করলে বাহ্যিক তাপের কারণে স্মার্টফোন হুট করে অনেক গরম হয়ে যায়। আবার এখনকার সময়ে অনেক ফোনেই মেটাল বডির ফ্রেম ব্যবহার করা হয়। অতিরিক্ত রোদের কারণে সেগুলো আরও বেশি গরম হয়। তাই তীব্র রোদে স্মার্টফোন সতর্কতার সঙ্গে ব্যবহার করতে হবে। 

উপরের পদ্ধতিগুলো অনুসরণ করলে অনেকাংশেই সমস্যাটি সমাধান হয়ে যায়। তবে কিছু ক্ষেত্রে যদি এসব পদ্ধতি মানার পরও অতিরিক্ত গরম হবার সমস্যাটি থেকে যায় তাহলে ফোনটি একবার ফ্যাক্টরি ডেটা রিসেট করে দেখা যেতে পারে। এরপরেও যদি সমাধান না হয় কিংবা স্মার্টফোন গরম হওয়ার সঙ্গে চার্জ দ্রুত ফুরিয়ে যাওয়ার মতো ঘটনা ঘটে তাহলে অনুমোদিত সার্ভিস সেন্টার থেকে সারিয়ে নিতে হবে। 

আরএ/ এজেড / জুলাই ৮ / ২০১৯/ ১১২০

*

*

আরও পড়ুন