বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচের উত্তেজনা ফেইসবুকেও

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে এখন ক্রিকেট ম্যাচ মানেই এক ধরনের ফুটন্ত উত্তেজনা বিরাজ করে। 

মঙ্গলবারের ম্যাচে নিয়ে সেই উত্তেজনা ছিল গত কয়েকদিন থেকেই। বিশেষ করে পাকিস্তানের সঙ্গে সর্বশেষ ম্যাচে আফগানিস্তানের পরাজয়, ইংল্যান্ডের সকাছে ভারতের হারের পর থেকেই সমীকরণ পাল্টাতে থাকে বিশ্বকাপের। 

সেই সমীকরণে কতটা হিসাব মিলবে সেটা কেউ না মেলাতে পারলেও বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচের উত্তেজনার পারদ ছিল চড়া। 

বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে তিনটায় যখন ভারত টস জিতে ব্যাটিং করতে নামে তখন সামাজিক মাধ্যমে এক ধরনের বন্যা বইতে শুরু করে স্ট্যাটাসের। 

সেই বানে কে না গা ভাসাননি? সব শ্রেণীর সামাজিক মাধ্যম ব্যবহারকারীই হয়ে ওঠেন এক একজন ক্রিকেট বোদ্ধা। আর পোস্ট করতে থাকেন নিজেদের মতামত। 

খেলার একটা পর্যায়ে ভারতের ওপেনার রোহিত শর্মার ক্যাচ হাত থেকে পড়ে গেলে সামাজিক মাধ্যমে মুণ্ডুপাত শুরু হয় বাংলাদেশের ওপেনার তামিম ইকবালের। 

ফখরুল জাবেদ নামের একজন লিখেছেন, সুষ্ঠু খেলা হলে আমরা (বাংলাদেশ) জিতবো।

এর আগেও ভারতের পক্ষে অনেক সিদ্ধান্ত দিয়েছে ম্যাচের অ্যাম্পায়ার। তাই এমন যেন না হয় সেদিকটাও আইসিসিকে নিশ্চিত করতে বলেন তিনি। 

মারিনা ইয়াসমিন লিখেছেন, আমাদের হারাবার কিছু নেই। তবে পাবার আছে অনেক কিছু। শুভকামনা বাংলাদেশ। 

প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ভারত ৫০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ৩১৪ করেছে। বাংলাদেশ তাদের ইনিংসে ব্যাট করতে নেমেছে। 

বাংলোদেশকে জিততে হলে ভালো খেলতে হবে জানিয়ে আবদুল্লাহ আর মারুফ ফেইসবুকে পোস্ট করেছেন, জেগে উঠো তামিম, সৌম্য, সাকিব, মুসফিক, সাব্বির; তাহলে খেলা ৪৭ ওভারে শেষ হবে ইন্শাল্লাহ!

বাংলাদেশ দলের ফাস্ট বোলার মোস্তাফিজুর রহমান ৫ উইকেট পেয়েছেন। এখন পর্যন্ত মোস্তাফিজুর রহমান যত ম্যাচে তিন উইকেট পেয়েছেন সেসব ম্যাচ বাংলাদেশ কখনো হারেনি। আজকের ম্যাচরও জিতবে বাংলাদেশ, এমন একটা প্রত্যাশা করে মিজানুর রহমান লিখেছেন, ফ্রিজ তিনটা পেলে কি হয়। বাংলাদেশ জিতে যায়। খেলবে টাইগার, জিতবে টাইগার। ইয়াহু। 

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশ তাদের ব্যাটিং ইনিংসে  ১০ ওভারে এক উইকেট হারিয়ে করেছে ৪০ রান। 

ইএইএচ/জুলাই ০২/ ২০১৯/ ২০৩৩

*

*

আরও পড়ুন