বিটকয়েন ১১ হাজার ডলার ছাড়াল

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দীর্ঘ সময় পর আবারও বিটকয়েনের দাম চড়েছে।

ফেইসবুকের ক্রিপ্টোকারেন্সি আনার ঘোষণার পরই বিটকয়েনের দাম বেড়ে ১১ হাজার মার্কিন ডলার ছাড়িয়েছে।

ক্রিপ্টোকারেন্সি কেনাবেচার সাইট কয়েনডেস্কের বিটকয়েন প্রাইস ইনডেক্স থেকে জানা যাচ্ছে, সোমবার দিনের শুরুতে ১০ হাজার ৬২৪ মার্কিন ডলার দাম নিয়ে শুরু হলেও, বাজার মূল্য একটা সময় গিয়ে ১১ হাজার ৩০৭ দশমিক ৬৯ ডলারে দাঁড়ায়। ২০১৮ সালের মার্চ মাসে পর এটিই বিটকয়েনের সর্বোচ্চ দাম।

২০১৭ সালের ডিসেম্বরে রেকর্ড ১৯ হাজার ডলারের বেশি দাম ওঠে প্রতি বিটকয়েনের।

গত বছরের শেষ দিকে বিটকয়েনের দাম পড়তে শুরু করে। চলতি বছরের শুরুর দিকে কিছুটা ওঠানামা করেছে বিটকয়েনের মূল্য। তখন প্রতি বিটকয়েনের মূল্য তিন হাজার ডলার পর্যন্ত নেমে যায়।

তবে ফেব্রুয়ারি থেকেই আবার বাড়তে শুরু করে দাম। বিশ্লেষকদের ধারণা, প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলো ক্রিপ্টোকারেন্সিতে নজর দেওয়ার পর থেকেই এর দাম বাড়তে শুরু করেছে।

চলতি মাসেই ফেইসবুক তাদের ক্রিপ্টোকারেন্সি লিব্রার ঘোষণা দেয়। তারপরই হু হু করে বাড়তে শুরু করে দাম।

বিটকয়েনের মূল্য দুইটি বড় কারণে বেড়েছে বলে মনে করেন ব্লকচেইন স্টার্টআপে বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান কেনেটিক ক্যাপিটাল সহ-প্রতিষ্ঠাতা জিহান চু। তার মতে দুটি কারণ হলো, এক বিনিয়োগকারীদের মধ্যে এমন ধারণা তৈরি হয়েছে যে বিটকয়েন হলো ডিজিটাল যুগের মানসম্পন্ন বৈধ সঞ্চয় মাধ্যম। আর দুই ফেইসবুকের লিব্রা ক্রিপ্টোকারেন্সি উন্মোচনের মাধ্যমে প্রত্যেক প্রতিষ্ঠান প্রধান এখন ক্রিপ্টোকারেন্সিকে গুরুত্বের সঙ্গে নিতে বাধ্য হচ্ছেন।

চলতি বছর বিটকয়েনের মূল্য বেড়েছে মোট ১৭০ শতাংশ। বিটকয়েনের দাম বাড়ায় ইথেরিয়ামের মতো ডিজিটাল মুদ্রার দামও বেড়েছে। চলতি বছর ইথেরিয়ামের দাম হয়েছে প্রায় দ্বিগুণ।

বাংলাদেশেও ব্লকচেইন প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করতে আগামী ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটে প্রযুক্তিগুলোর উপর বিশেষ নজর রাখার কথা বলা হয়েছে।

ইএইচ/ জুন ২৪/ ২০১৯/ ২১১৫

*

*

আরও পড়ুন