স্টেডিয়ায় খেললে ৬৫ ঘণ্টায় শেষ হবে ১ টেরাবাইট

google-stadia-controller

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : গুগলের অনলাইন গেইম স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম স্টেডিয়া আসছে নভেম্বরে। ক্লাউড গেইমিং সার্ভিসটির ব্যাপারে প্রথম জানানো হয় গত মার্চে।

তবে সাবস্ক্রিপশন ফি, কোন অঞ্চলে সেবাটি পাওয়া যাবে এবং কখন থেকে স্টেডিয়া চালু হবে তা এতোদিন গোপন ছিলো। বৃহস্পতিবার গুগল এক ঘোষণায় জানিয়েছে, ২১ পাবলিশারের ৩১টি গেইম থাকবে স্টেডিয়াতে। প্রথমে শুধু ১৪টি দেশেই ক্লাউড গেইমিং সার্ভিসটি চালু করা হবে। স্টেডিয়া প্রোয়ের সাবস্ক্রিপশন ফি হবে ৯ দশমিক ৯৯ ডলার। এই সেবা নিলে গেইমাররা ৪কে রেজুলেশনে ৬০ ফ্রেম পার সেকেন্ডে গেইম স্ট্রিম করতে পারবেন।

তবে ম্যাগাজিন পিসি গেইমার জানিয়েছে, ৪কে রেজুলেশনে গেইম খেললে ৬৫ ঘণ্টায় খরচ হবে ১ টেরাবাইট ডেটা। যারা দিনে দুই-এক ঘণ্টা করে গেইম খেলেন তাদের হয়তো সমস্যা হবে না। কিন্তু যাদের গেইমের প্রতি আসক্তি আছে তাদের জন্য ইন্টারনেটের খরচ সামলানো কঠিন হয়ে উঠবে।

স্টেডিয়া কন্ট্রোলার ও ক্রোমক্রাস্ট আল্ট্রা ছাড়া গেইম খেলা যাবে না। এই দুটি ডিভাইস কিনতে খরচ হবে ১২৯ ডলার।

এখানেই শেষ নয়, ৯ দশমিক ৯৯ ডলার সাবস্ক্রিপশন ফি দিলেও নতুন গেইম পাওয়া যাবে না। নতুন গেইম খেলতে হলে আগে তা কিনতে হবে।

ফ্রিতেও কিছু গেইম খেলারও সুযোগ দেবে গুগল। ফ্রি সংস্করণ স্টেডিয়া বেজ আসতে পারে ২০২০ সালে। কিন্তু সেখানে কোনো গেইমই ৪কে রেজুলেশনের হবে না। সবগুলো গেইমের রেজুলেশন হবে ফুল এইচডি।

স্টেডিয়া সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানা যাবে ইলেকট্রনিক এন্টারটেইনমেন্ট এক্সপোতে (ই৩)।

ইউবারগিজমো অবলম্বনে এজেড/ জুন ৮/২০১৯/১২

*

*

আরও পড়ুন