অ্যান্ড্রয়েডের বিকল্প পাঁচ ওপেন সোর্স ওএস

Evaly in News page (Banner-2)

রিয়াদ আরিফিন, টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : স্মার্টফোনের বাজারে অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে বর্তমানে রাজত্ব করছে অ্যান্ড্রয়েড। মার্কিন জায়ান্ট গুগলের মালিকানাধীন এই অপারেটিং সিস্টেমের দখলে রয়েছে বাজারের ৭৬ শতাংশ। 

এই বাজারের আরেকটি অংশ হলো, অ্যাপলের নিজস্ব অপারেটিং সিস্টেম আইওএস। কিন্তু এটি ওপেন সোর্স না হওয়ায় এবং অধিক দামের কারণে অন্যরা ব্যবহার করেন না।  

অ্যান্ড্রয়েডের বিকল্প কয়েকটি ওপেন সোর্স অপারেটিং সিস্টেম রয়েছে যা অনেকেরই অজানা। দেখে নেয়া যাক কী কী রয়েছে তালিকায়। 

কাই ওএস

স্মার্টফোনের জন্য ফায়ারফক্স ফাউন্ডেশনের তৈরি করা ‘ফায়ারফক্স ওএস’ বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর তারা ‘কাই ওএস’ নিয়ে আসে। এটির উদ্দেশ্য টাচ নয় এমন হ্যান্ডসেটে জিপিএস, ওয়াইফাই, ফোরজি ও এইচটিএমএল-৫ ভিত্তিক অ্যাপ সাপোর্ট দেয়া। বর্তমানে বিশ্বজুড়ে অপারেটিং সিস্টেমের ১০ লাখের বেশি গ্রাহক আছে। পাশ্ববর্তী দেশ ভারতে অ্যাপলের আইওএসকে হটিয়ে জিয়ো ফোনের হাত ধরে এটি দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বাজার দখল করেছে। 

এটি মূলত লিনাক্স ব্যবহার করে গড়ে তোলা ওপেন সোর্স অপারেটিং সিস্টেম।

প্লাজমা মোবাইল

কেডিএ ফাউন্ডেশন নামক এক প্রতিষ্ঠান লিনাক্সকে ভিত্তি করে এই ওপেন সোর্স অপারেটিং সিস্টেম তৈরিতে কাজ করে যাচ্ছে। আপাতত নেক্সাস ৫এক্স এর মত কিছু হ্যান্ডসেটে এটি ব্যবহার করা যাবে। এই অপারেটিং সিস্টেম এখনো অনেকটা পরীক্ষামূলক পর্যায়েই আছে। 

লাইনেজ ওএস

অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনের কাস্টম রমের জন্য জনপ্রিয় সায়ানোজেন মোড ২০১৬ এর তৃতীর প্রান্তিকে বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর লাইনেজ ওএস যাত্রা করে। এটি মূলত অ্যান্ড্রয়েডকে ভিত্তি করে গড়ে ওঠা অপারেটিং সিস্টেম। 

বিভিন্ন ব্র্যান্ডের প্রায় ১৮০টি মডেলে এটি ব্যবহার করার সুযোগ মিলবে। বিস্তারিত পাওয়া যাবে এই লিংকে। 

উবুন্টু টাচ

এউবিপোর্টস নামক অলাভজনক এক সংগঠনের হাত ধরে এই অপারেটিং সিস্টেমের যাত্রা। লিনাক্স ব্যবহার করে কমিউনিটি ভিত্তিক গড়ে ওঠা অপারেটিং সিস্টেমটি বাজারে থাকা অনেক ফোনেই ব্যবহারেই সুযোগ মিলবে। 

এই অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করার বিস্তারিত পাওয়া যাবে এই লিংকে। 

টাইজেন ওএস

প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান স্যামসাং তৈরি করেছে তাদের টাইজেন ওএস। স্যামসাং এই অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করে স্মার্টফোন বাজারে ছাড়লেও সফলতার মুখ দেখেনি। আপাতত এটি স্মার্টটিভি এবং স্মার্ট ঘড়ির অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে ব্যবহার করছে স্যামসাং। 

এসব ছাড়াও সম্প্রতি চীন-মার্কিন বাণিজ্য যুদ্ধের বলি হবার পর চীনা প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে নতুন একটি অপারেটিং সিস্টেম আনার ঘোষণা দিয়েছে। ওই অপারেটিং সিস্টেমটির নাম হতে পারে আর্ক ওএস বা হংমেং। এটিও অ্যান্ড্রয়েডকে কেন্দ্র করেই তৈরি হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে হুয়াওয়ে এখনো অপারেটিং সিস্টেমরটি সম্পর্কে বেশি কিছু জানায়নি। 

আরএ/ইএইচ/জুন ১৯/২০১৯/ ১০০০

আরও পড়ুন – 

অ্যান্ড্রয়েডে ম্যালওয়্যার থেকে বাঁচার উপায় 

কম্পিউটার দিয়েই অ্যান্ড্রয়েড ফোন নিয়ন্ত্রণ 

*

*

আরও পড়ুন