উদ্বেগে হুয়াওয়ের গ্রাহকরা

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : হুয়াওয়ের ফোন ব্যবহারকারীরা গতকাল থেকেই উদ্বেগে রয়েছেন। সেটা যেমন দেশের ব্যবহারকারী, তেমনি সারা বিশ্বেরই। 

প্রকৃত কারণ অনেকেই না জেনে সেই উদ্বেগ আরও বাড়িয়ে তুলছেন বলে খবরও করেছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। সেখানে বেশ কয়েক দেশের ব্যবহারকারীর মন্তব্য দেওয়া হয়েছে। 

অনেক হুয়াওয়ের গ্রাহক উদ্বিগ্ন হয়ে রয়টার্সকে মেইলে ও অন্যান্য মাধ্যমে জানতে চেয়েছে, গুগলের সঙ্গে চুক্তি বাতিল হয়ে যাবার কারণে কী তারা আর তাদের ফোনে ইউটিউব, ম্যাপ, প্লে স্টোর ব্যবহার করতে পারবেন না? নাকি ফোনটি দিয়ে গুগলের কোন সেবাই ব্যবহার করা যাবে না?

রয়টার্স হুয়াওয়ে গ্রাহকদের বিষয়টি পরিষ্কার করেছে বলেও জানায়। 

গুগল রোববার জানিয়েছে, তাদের সঙ্গে চীনা জায়ান্ট হুয়াওয়ের যে বাণিজ্য চুক্তি রয়েছে সেটি তারা বাতিল করেছে। ফলে নতুন করে হুয়াওয়ের আর কোন ডিভাইসে গুগলের ইউটিউব, ম্যাপ, প্লে স্টোর, ক্রোম ব্রাউজারসহ অন্যান্য কিছু সেবা ব্যবহার করতে পারবে না। এরপরই উদ্বেগ দেখা দেয় গ্রাহকদের মধ্যে। 

লন্ডনের এক বাসিন্দা লুনা অ্যাঞ্জেলিকা রয়টার্সকে বলেছেন, তিনি বিষয়টি নিয়ে খুবই মর্মাহত। কারণ অল্প কয়েকদিন আগেই তিনি হুয়াওয়ে পি স্মার্ট প্লাস ডিভাইস কিনেছেন। তাহলে কী আবার তাকে ডিভাইসটি বদল করতে হবে?

তবে ট্রাম্পের এমন সিদ্ধান্তকে পশ্চিমা দেশগুলোর অনেকেই স্বাগত জানাতে পারেননি। তাদের কথা, যদি হুয়াওয়ে তাদের ডিভাইসের মাধ্যমে গুপ্তচরবৃতি করে থাকেন তবে সেটা আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করা যেত বলেও মনে করছেন। 

এখন যদি হুয়াওয়ের ফোনে গুগলের সেবা ব্যবহার করতে না পারেন, তবে হুয়াওয়ের উচিত ফোনটি ফেরত নিয়ে তার দাম পরিশোধ করা। এমনটাও বলছেন অনেকে গ্রাহক। 

আমি হুয়াওয়ের ফোন খুব পছন্দ করি। আমি একদিন আগে খবর শুনে অনেকটা স্তম্ভিত হয়ে গেছে। তাহলে কী আমার ফোনটি বিক্রি করে দিতে হবে? আমি তো মাত্রই দুই সপ্তাহ আগে ওয়াই ৭ কিনেছি, বলেন নাইরোবিতে বসবাস করা অ্যান্থনি সিরিঙ্গা। 

 যদি এমন কিছু হয় যে অনেক কাজ করা যাবে না এখন থেকে তবে হুয়াওয়ের উচিত হবে ফোন রিপ্লেস করে দেওয়া, বলেন তিনি। 

হুয়াওয়ের যে কটি দেশে খুব ভালো ব্যবসা বৃদ্ধি হচ্ছে তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলো, বিশেষ করে ভারত, আফ্রিকার কেনিয়াসহ আরও কিছু দেশ। 

কম এবং মাঝারি বাজেটের ফোন দিয়ে এই বাজারগুলোতে অল্প সময়েই অনেকটা দখল নিয়েছে হুয়াওয়ে। এমন সিদ্ধান্ত দীর্ঘস্থায়ী হলে এসব বাজারে প্রভাব পড়বে বলে মনে করছেন বাজার বিশ্লেষকরা। 

ভারতের মুম্বাইয়ের বাসিন্দা ও ব্যবসায়ী সুমিত বলেন, আমি ইতোমধ্যে মনস্থির করেছি হুয়াওয়ের সর্বশেষ বাজারে আসা পি ৩০ প্রো ডিভাইসটি কিনবো। কিন্তু এর মধ্যেই গতকাল এমন সংবাদ পাই। কিন্তু যদি ফোনে ইউটিউব, প্রে স্টোর, ম্যাপের মতো সেবা ব্যবহার করা না যায় তবে সেটা তো আর কেনার প্রশ্ন ওঠে না। বরং বিকল্প ভাবতে হবে। 

অবশ্য ক্রেতাদের আশ্বস্ত করে হুয়াওয়ে বলছে, তাদের স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা আগের মতোই সব সেবা পেয়ে যাবেন। এমনকি তাদের স্টকে থাকা ফোনগুলো কিনলেও গুগলের সেবা পাবেন গ্রাহকরা।

রয়টার্স থেকে ইএইচ/মে২০/ ২০১৯/ ২১৩০

*

*

আরও পড়ুন