STE 2019 (summer) in news page

হুয়াওয়ের ফোনে অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা!

Laptop fair 2019 (in page)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : বেশ কিছুদিন ধরে গুঞ্জন চলার পর অবশেষে মার্কিন সরকার চীনা প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে।

নতুন নিষেধাজ্ঞার ফলে মার্কিন জায়ান্ট গুগল হুয়াওয়ের সঙ্গে তাদের বাণিজ্য চুক্তি বাতিল করেছে। ফলে এখন থেকে আর হুয়াওয়ে তাদের ফোনে গুগলের প্লে স্টোর, ইউটিউব, জিমেইল, ক্রোম বাউজারসহ অন্যান্য সার্ভিস ব্যবহার করতে পারবে না।

এতে বিপদের মুখে পড়বে হুয়াওয়ের স্মার্টফোন ব্যবসা। কারণ তারা মার্কিন প্রতিষ্ঠান গুগলের অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের নির্ভরশীল।

এছাড়াও গুগলের সিকিউরিটি আপডেট থেকেও বঞ্চিত হবে পুরনো সব হুয়াওয়ের ফোন ব্যবহারকারীরা। 

যদিও ওপেন সোর্স হওয়ার কারণে অ্যান্ড্রয়েডের পাব্লিক রিলিজগুলো (এওএসপি) ব্যবহার করতে পারবে হুয়াওয়ে। কিন্তু সেটির সেবাও যথেষ্ট নয়। ফলে অনেকেই গুগল প্লের সেই প্রয়োজনীয় সেবাগুলো ছাড়া স্মার্টফোন কিনতেও চাইবে না।  

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জারি করা এক নির্বাহী আদেশের ভিত্তিতে মার্কিন বাণিজ্য বিভাগ হুয়াওয়েকে একটি তালিকাভুক্ত করেছে।  এর আওতায় মার্কিন কোন প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ের কাছে কোন হার্ডওয়্যার বা সফটওয়্যার পণ্য বিক্রয় করতে পারবে না। যদি এই অবস্থায় হুয়াওয়ের সঙ্গে কেউ ব্যবসা করতে চায় তবে তাকে আলাদাভাবে মার্কিন সরকারের কাছ থেকে লাইসেন্স নিতে হবে। 

তবে সফটওয়্যারের পাশাপাশি হার্ডওয়্যারের জন্যেও চীনা প্রতিষ্ঠানটি মার্কিন আরও কিছু প্রতিষ্ঠান যেমন- কোয়ালকম, ইন্টেলের উপর নির্ভরশীল। এসব প্রতিষ্ঠান থেকে যন্ত্রাংশ কেনার ক্ষেত্রেও নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়বে হুয়াওয়ে।

পশ্চিমা দেশগুলোতে অল্প সময়ের মধ্যেই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে হুয়াওয়ের স্মার্টফোন। পরপর কিছু ফ্ল্যাগশিপ ফোন এনে অ্যাপলের সঙ্গে টক্কর দিতে শুরু করে চীনা প্রতিষ্ঠানটি। গুগলের এমন সরে আসার খরব নিশ্চয় ভালোভাবে নেবে না পশ্চিমারা। ফলে ব্যবসায় বড় ধরনের সমস্যার সম্মুখীণ হতে পারে বলে ধারণা করছেন বিশ্লেষকরা। 

হুয়াওয়ের পক্ষ থেকে পরিস্থিতি সামলে উঠার কথা বলা হয়েছে।

এখানে উল্লেখ্য, চলমান এই বাণিজ্য যুদ্ধে এর আগে হুয়াওয়ে ফাইভজি নেটওয়ার্ক বিকাশে ব্যবহৃত যন্ত্রাংশ মার্কিন বাজারে সরবরাহ বন্ধ করতে বাধ্য হয়েছে।

রয়টার্স অবলম্বনে আরএ/ইএইচ/মে২০/২০১৯/১০১৫

*

*

আরও পড়ুন