স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপের চূড়ান্ত পর্ব বসছে মঙ্গলবার

Robi Before feture image

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সারাদেশের বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে উদ্ভাবনী ধারণা খোঁজার প্রতিযোগিতা স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপের প্রথম পর্বের বাছাই শেষ হয়েছে।

প্রথম পর্বে দেশের ৪০ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনটি করে ১২০ দল নির্বাচনের পরে এবার বসতে যাচ্ছে মূল আসর। আগামী মঙ্গলবার থেকে ওই দলগুলো নিয়ে সাভারে বুটকাম্প শুরু হচ্ছে।

সাভারের শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইন্সটিটিউটে তিন দিনের ক্যাম্প শেষে নির্বাচন করা হবে প্রথম পর্বের শীর্ষ ধারণাগুলো।

তিন দিনের বুটক্যাম্পটিতে যোগ দিতে হবে সোমবারেই। ইতোমধ্যে আয়োজকদের পক্ষ থেকে প্রাথমিক নির্বাচিতদের কাছে বুটক্যাম্পে যোগ দেবার কথা জানানো হয়েছে।

বুটক্যাম্প শেষ হলে শিক্ষার্থীরা তাদের উদ্ভাবনী ধারণাগুলো তুলে ধরবেন বিচারকদের সামনে। সেখান থেকে চূড়ান্ত বাছাই শেষ বিজয়ী নির্বাচন করা হবে।

প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের ‘ইনোভেশন ডিজাইন অ্যান্ড এন্ট্রাপ্রেনারশিপ একাডেমি’ বা আইডিয়া প্রকল্প এবং দেশের সর্ববৃহৎ তারুণ্যের প্লাটফর্ম ইয়াং বাংলার উদ্যোগে দেশের ৪০ বিশ্ববিদ্যালয়কে কেন্দ্র করে শুরু হয়েছিল ‘স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপ : চেপ্টার ওয়ান’।

গত ৮ মার্চ ‘আমার উদ্ভাবন, আমার স্বপ্ন’ স্লোগানে শুরু হয় স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপ প্রতিযোগিতা। আর গতকাল শুক্রবার বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যাল বা বুয়েটের প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে এর সমাপ্তি ঘটে।

আয়োজকরা জানান, ১৪ মে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হবে স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপের জাতীয় ক্যাম্পের কার্যক্রম। সেদিন ১২০ টি দলকে নিয়ে দিনব্যাপী চলবে বিশেষ কর্মশালা। যেখানে অংশগ্রহণ করা দলগুলোকে নিজ নিজ উদ্যোগ নিয়ে সফলতার সাথে পিচিং এর জন্য প্রশিক্ষণ দেয়া হবে।
পরদিন ১৫ মে, অংশগ্রহণকারী উদ্যোক্তা দলগুলোকে আরো কিছু বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান ও দলগুলোকে নিজেদের গুছিয়ে নেয়ার সময় দেয়া হবে।
১৬ মে, পিচিং রাউন্ড শেষে বিচারকদের ভোটে বাছাই করা হবে মূল প্রতিযোগিতার শীর্ষ ৩০ স্টার্টআপ । পরে জাতীয় পর্যায়ে সেরা ১০ উদ্ভাবনী ভাবনা বা স্টার্টআপ নির্বাচন করবেন ‘আইডিয়া’ প্রকল্পের বাইছাই কমিটি এবং অন্যান্য বিচারকরা।
গ্র্যান্ড ফাইনাল ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে ডাক টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, আইডিয়া প্রকল্প পরিচালক সৈয়দ মুজিবুল হক, সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই) নির্বাহী পরিচালক সাব্বির বিন শামস ও সহযোগী সমন্বয়ক তন্ময় আহমেদসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত থাকবেন।
ইএইচ/মে১১/ ২০১৯/ ২০১০

*

*

আরও পড়ুন