STE 2019 (summer) in news page

অ্যামাজনের বিরুদ্ধে অন্তঃসত্ত্বা কর্মীকে ছাঁটাইয়ের অভিযোগ

amazon-techshohor
Laptop fair 2019 (in page)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : অন্তঃসত্ত্বা কর্মীদের চাকরিচ্যুত করায় আবারও বিতর্কের মুখে পড়েছে অ্যামাজন। উদ্বেগ দেখা দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটির ওয়্যারহাউজের কর্ম পরিবেশ নিয়েও।

গত ৮ বছরে চাকরিচ্যুত ৭ নারী কর্মী এ নিয়ে মামলা করেছেন। তারা সবাই অন্তঃসত্ত্বা হওয়াতে চাকরি হারিয়েছিলেন।

অ্যামাজন এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে। প্রতিষ্ঠানটির দাবি, তারা কর্মীদের সমঅধিকারে বিশ্বাসী। কর্মীদেরকে মেডিকেল সাপোর্ট দেওয়ার পাশাপাশি মাতৃত্বকালীন ও পিতৃত্বকালীন ছুটি দিয়েও তারা সহায়তা করে থাকে।

তবে মামলাগুলোর ব্যাপারে অ্যামাজন কোনো মন্তব্য করেনি। মামলার বাইরে বেশিরভাগ ঘটনাই আদালতে গড়ানোর আগেই রফাদফা করা হয়।

এবারই প্রথম নয়, ওয়্যার হাউজের কর্ম পরিবেশ নিয়ে এর আগেও অভিযোগ করেছিলেন কর্মীরা। গ্রাহকদের অর্ডার করা পণ্য ওয়্যারহাউজের প্যাকেট করে বিভিন্ন স্থানে ডেলিভার করা হয়। একদিনে লাখ লাখ পণ্যের ডেলিভারি পাঠানো হয় এই ওয়্যারহাউজ থেকে। অ্যামাজনের কর্মী সংখ্যা ৬ লাখ ১৩ হাজার। ক্রিসমাসের মৌসুমে বাড়তি চাপ সামলাতে আরও এক লাখ অস্থায়ী কর্মী নিয়োগ দেওয়া হয়।

শিল্পখাতে কর্মীদের অধিকার রক্ষার সংগঠন জিএমবির কাছে এক চাকরিচ্যুত কর্মী জানিয়েছেন, অন্তঃসত্ত্বা হওয়ায় ম্যানেজারকে বলেছিলাম অন্য বিভাগে কাজ দিতে। কিন্তু সে তাতে রাজি হয়নি।

যে বিভাগে কাজ করতাম সেখানে হাঁটু গেড়ে বসে কাজ কতে হতো, কয়েক মাইল হেঁটে ভারি ভারি কার্ট ঠেলতে হতো।

কোনো কোনো কর্মী জানিয়েছেন, অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পরও তাদেরকে ১০ ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থেকে কাজ করতে বাধ্য করা হয়।

অ্যামাজন অবশ্য এসব ঘটনাকে অবাস্তব কল্পকাহিনী বলে উড়িয়ে দিয়েছে।তাদের ভাষ্য, কোনো কর্মী অন্তঃসত্ত্বা হলে ঝুঁকি নিরূপন করা হয়, প্রয়োজনে ডাক্তারের সঙ্গেও আলোচনা করা হয়।

বিবিসি অবলম্বনে এজেড/ মে০৯/২০১৯/১১২১

*

*

আরও পড়ুন