নেটওয়ার্কে টাকা ঢেলে আয় বাড়াল বাংলালিংক

Banglalink-logo-techshohor

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : নেটওয়ার্কের মান উন্নয়নের ওপর গুরুত্ব দিয়ে গত এক বছরে অনেক টাকা বিনিয়োগ করেছে বাংলালিংক। একটু দেরিতে হলেও এর ফল পেতে শুরু করেছে অপারেটরটি।

দীর্ঘদিন পর আয়ের দিক থেকে ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত দিয়ে চলতি বছর শুরু করেছে এক সময়ের দ্বিতীয় গ্রাহক সেরা মোবাইল ফোন অপারেটরটি। রবির সঙ্গে এয়ারটেল একীভূত হওয়ার পর গ্রাহকের বিবেচনায় তিন নম্বরে নেমে যায় বাংলালিংক।

অপারেটরটির মূল কোম্পানি ভিয়ন বৃহস্পতিবার জানুয়ারি-মার্চ প্রান্তিকের আর্থিক হিসাব প্রকাশ করে। এতে দেখা যায়, বছরের প্রথম তিন মাসে এক হাজার ১২১ কোটি ৩০ লাখ টাকা আয় করেছে বাংলালিংক। আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় তা সাড়ে ৪ শতাংশ বেশি।

এর আগে গত কয়েক বছর ধরে শুধু আয় কমার খবরে সংবাদের শিরোনাম হয়েছে অপারেটরটি।

অপারেটরটি বলছে, নেটওয়ার্কের মান উন্নয়ন তাদের ঘুরে দাঁড়াতে সাহায্য করেছে। এ কারণে অপারেটরটি রেগুলেটরি নানা শক্ত অবস্থানের পরও আগের কয়েক বছরের মধ্যে আয়ের বিচারে এখন সেরা সময় পার করছে।

কয়েক বছর আগেও প্রতি প্রান্তিকে বাংলালিংক এক হাজার ২০০ থেকে এক হাজার ৩০০ কোটি টাকা আয় করলেও পরে তা এক হাজার কোটি টাকার কাছাকাছি নেমে যায়।

মূলত নেটওয়ার্কের অবস্থা খারাপ হওয়ার কারণে অপারেটরটি থেকে গ্রাহকরা সরে যেতে শুরু করে। এর আগে বিষয়টি তাদের আর্থিক প্রতিবেদনেও স্বীকার করে ভিয়ন।

এমন পরিস্থিতিতে নেটওয়ার্কের মান বাড়িয়ে গ্রাহক ধরে রাখতে গত বছর ফেব্রুয়ারি মাসে অপারেটরটি আরও ১০ মেগাহার্ডজ স্পেকট্রাম কেনে। একই সঙ্গে নেটওয়ার্কের মানোন্নয়নেও বিনিয়োগ করে।

এর সুফল পেতেও শুরু করে তারা। যে কারণে অপারেটরটি আবারও গ্রাহকদের পছন্দের অবস্থানে চলে আসতে শুরু করে।

জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত তিন মাসে অপারেটরটির মোট আয় যেমন বেড়েছে, বেড়েছে ডেটা থেকে আয়ও। সে কারণে গ্রাহক প্রতি মাসিক গড় আয়েও এসেছে ইতিবাচক পরিবর্তন।

এক বছর আগেও বাংলালিংকের গ্রাহকরা যেখানে গড়ে অপারেটরটিকে মাসে ১০৯ টাকা করে দিয়েছে, সেখানে চলতি বছরের একই সময়ে তা বেড়ে হয়েছে ১১২ টাকায়।

তাছাড়া আগের চেয়ে অপারেটরটির কার্যকরি গ্রাহক ২ দশমিক ৪ শতাংশ বেড়ে তিন কোটি ৩০ লাখে গিয়ে পৌঁছে। বেড়েছে কার্যকর ইন্টারনেট সংযোগ এবং ডেটার ব্যবহারও।

এত সব ফল ইতিচাক হওয়ায় প্রথম প্রান্তিকে অপারেটরটির কর পূর্ববর্তী আয়
হয়েছে প্রায় পাঁচ হাজার কোটি টাকা।

জেডএ/আরআর/মে ৪/২০১৯/২.৩৮

আরও পড়ুন –

টানা আয় কমছে বাংলালিংকের

*

*

আরও পড়ুন