চ্যালেঞ্জ নিতে পারলেই তথ্যপ্রযুক্তিতে নারীরা নেতৃত্ব দেবে

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : তথ্যপ্রযুক্তিতে নারীবিষয়ক আন্তর্জাতিক দিবস  বা গার্লস ইন আইসিটি ডে পালন হয় প্রতি বছর ২৫ এপ্রিল। 

দেশে এমন কি বিশ্বের অধিকাংশ দেশেই তথ্যপ্রযুক্তি খাতে খুব কম পরিমাণ নারীরা কাজ করেন। দেশে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে কাজ করা দুজন নারী জানিয়েছেন তাদের অভিজ্ঞতা। 

দেশের সবচেয়ে বড় মোবাইল অপারেটর গ্রামীণফোনের কোর অ্যান্ড সার্ভিস প্রোজেক্টের হেড শায়লা রহমান এবং ডিজিটাল অ্যান্ড অ্যানালিটিক্স অপারেশন বিভাগের প্রধান সোয়াইবা সারওয়াত সিনথিয়া। 

টেকশহরে অতিথি হয়ে এসে তারা কথা বলেছেন, তথ্যপ্রযুক্তি খাতে নারীদের শিক্ষা, তাদের উদ্যোক্তা হওয়া বা চাকরি করা এবং দেশের প্রেক্ষাপটে তথ্যপ্রযুক্তিতে কাজসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করেছেন। 

নিজেদের কাজের পরিধি নিয়ে বলতে গিয়ে তারা জানান, একটি বড় টেলিকম প্রতিষ্ঠানে কাজ করার শুরু থেকে অনেক ধরনের চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হয়েছে তাদের। 

তারা যখন কাজ শুরু করেন, তখন দেশে টেলিকম খাত একটা ব্লুমিং অবস্থায় ছিল। তাই পড়াশোনা শেষেই কাজ শুরু করার সুযোগ পান গ্রামীণফোনে। 

তারা বলেন, গ্রামীণফোনে কাজ করে অবশ্য কখনো মনে হয়নি তারা নারী। কারণ সেখানে জেন্ডার সেনসেটিভ বিষয়গুলোকে খুব সতর্কতার সঙ্গে মোকাবিলা করা হয়। 

কাজের ক্ষেত্রে সবসময় চ্যালেঞ্জ নিতে হবে, তথ্যপ্রযুক্তিতে কাজের ক্ষেত্রে সবসময় সেটা বেশি পরিমাণে চ্যালেঞ্জ নিতে হবে বলে জানান। 

দেশে অবশ্যই তরুণ নারীদের তথ্যপ্রযুক্তিতে শিক্ষায় আরও আগ্রহী হতে হবে। কারণ, এখন অনেক সুযোগ তৈরি হচ্ছে এই খাতে। টেলিকম বা তথ্যপ্রযুক্তি যাই বলি না কেন, সেখানে মূলত যোগ্যতা দিয়ে কাজ করতে হয়, সেখানে নারী পুরুষ ভেদাভেদ করা হয় না বলেলেই চলে। তাই সাহস করে এগিয়ে আসতে হবে বলে জানান এই দুই নারী। 

বিস্তারিত রয়েছে এই ভিডিওতে। 

ইএইচ/ মে০২/ ২০১৯/ ১৯০০

*

*

আরও পড়ুন