ভারতে টিকটক কী নিষিদ্ধ হচ্ছে?

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : টিকটককে বন্ধ করতে দেশটির আদালতে গড়িয়েছে অনেক আগেই।

তবে গত বুধবার দেশটিতে টিকটক অ্যাপ প্লেস্টোর এবং অ্যাপ স্টোর থেকে সরিয়ে নিয়েছে গুগল ও অ্যাপল।

দেশটিতে একেবারে টিকটক অ্যাপ নিষিদ্ধ হবে নাকি বন্ধ করা হবে সে সিদ্ধান্ত জানা যাবে আগামী পরশু বুধবার।

এর আগে মাদ্রাজ আদালত কেন্দ্রকে টিকটক নিষিদ্ধ করার কথা জানালে তা অন্তবর্তীকালের জন্য বন্ধ করা হয়। তবে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দিতে পারেনি কেন্দ্র।

সুপ্রিম কোর্টের আগামী ২৪ এপ্রিলের আগে সেটি সম্পর্কে কোন রায় দেয়া সম্ভব নয়।

সুপ্রিম কোর্ট কোন বিশেষজ্ঞের মতামত এবং সঠিক পর্যবেক্ষণ ছাড়া সেটি নিষিদ্ধ বা বন্ধ করার আদেশ দিতে পারে না বলে জানিয়েছে মাদ্রাজ কোর্টকে।

আগামী দুই দিনের মধ্যে হাইকোর্টও এই আদেশ দিতে পারবে না। ফলে এর চূড়ান্ত আদেশের জন্য অপেক্ষা করতেই হচ্ছে।

টিকটক অ্যাপ পর্নোগ্রাফিকে উৎসাহিত করছে এবং শিশু ব্যবহারকারীদের নিশানা বানাচ্ছে যৌন শিকারীরা এমন অভিযোগ সেই শুরু থেকেই। দিন দিন এর ব্যবহারকারী বাড়ছে। ফলে আরও ভয়াবহ হচ্ছে অ্যাপটি। তাই এর নিষিদ্ধ চেয়ে আদালতের দ্বারস্থ হলে সেটি সাময়িক নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

অ্যাপটি তৈরি করেছে চীনের বাইটড্যান্স কোম্পানি। ইতোমধ্যে প্রতিষ্ঠানটি ভারতে নিষিদ্ধের বিরুদ্ধে আপিল করেছে।

ভারতে টিকটকের ব্যবহারকারী সবচেয়ে বেশি। শতকোটি ব্যবহারকারী পেরুনো অ্যাপটি ভারতে চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকে নতুন করে ৯ কোটি ব্যবহারকারী যুক্ত করেছে।

ইএইচ/এপ্রিল২২/২০১৯/১৯৪০

আরও পড়ুন –

টিকটক নিষিদ্ধের পক্ষে ৮০% ভারতীয়

টিকটককে ৫৭ লাখ ডলার জরিমানা

*

*

আরও পড়ুন