'ফেইসবুক নৈতিকভাবে দেউলিয়া, আবেগে ভরা মিথ্যাবাদী'

FACEBOOK-techshohor

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ফেইসবুকের কর্মকাণ্ডে কোন অঞ্চলের মানুষই সন্তুষ্ট নয়। যেমন সন্তুষ্ট হয়নি নিউজিল্যান্ডের মানুষ।

এবার ফেইসবুককে ‘নৈতিকভাবে দেউলিয়া ও আবেগে ভরপুর মিথ্যাবাদী’ হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন নিউজিল্যান্ডের প্রাইভেসি কমিশনার জন এডওয়ার্ডস।

দেশটির ক্রাইস্টচার্চ শহরে দুটি মসজিদে হামলায় ৫০ জন নিহত হবার ঘটনাটি ফেইসবুকে সম্প্রচার ঠেকাতে ব্যর্থ হয়েছেন জাকারবার্গ। এমনকি ভিডিওটি প্লাটফর্ম থেকে মুছে দিতে ব্যর্থ হওয়ায় এমন তকমা দিয়েছে ফেইসবুককে।

রোববার এডওয়ার্ড টুইট করে বলেছেন, ফেইসবুককে বিশ্বাস করা যায় না। তারা নৈতিকভাবে দেউলিয়া হয়ে গেছে। আবেগপূর্ণ ভাবে মিথ্যাচার করছে। তারা গণহত্যার (মিয়ানমারের) সঙ্গে যুক্ত। বিভিন্ন দেশের গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠান ধ্বংস করার অন্যতম হাতিয়ারও সে।

তারা আত্মহত্যা, ধর্ষণ এবং খুনের সরাসরি ভিডিও দেখানোর অনুমতি দেয়। মসজিদে হামলার ভিডিও সরাসরি দেখাতে দেয়। ইহুদী বিদ্বেষীদের লক্ষ্য করে বিজ্ঞাপন দেয়। আর এসব নিয়ে যেসব ক্ষয়ক্ষতি হয়, যে অস্থিরতা তৈরি হয় তার দায় নিয়ে পুরো অস্বীকার করে ফেইসবুক। এডওয়ার্ড হ্যাশট্যাগ দিয়ে লেখেন, তারা #ডোন্টগিভএজাক।

পরে অবশ্য তিনি টুইটটি মুছে ফেলেন।মার্ক জাকারবার্গের সাক্ষাত্কারে তাদের আলোচনার টুইটগুলিকে তিনি মুছে ফেলেন, কারণ তারা ভুল পথে সেটি চালিত করে ট্র্যাফিক আনার কাজ করছিল বলে জানান এডওয়ার্ড।

এর আগে এক সাক্ষাৎকারে মুখোমুখি হয়েছিলেন এডওয়ার্ড ও জাকারবার্গ। সেখানে জাকারবার্গকে যেসব প্রশ্ন করা হয়েছে তার খুবই কৌশলী ও রাজনৈতিক উত্তর দিয়েছেন। তাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, এখন পর্যন্ত কতটি খুন, ধর্ষণ, কতটি আত্মহত্যা কিংবা যৌন হয়রানির ভিডিও প্রচার করা হয়েছে? তিনি এর কোন উত্তর দেননি।

এডওয়ার্ড জাকারবার্গকে আরও অনেক কিছু নিয়েই প্রশ্ন করেন, কিন্তু সেগুলোর কোন উত্তর দেননি তিনি।

এর আগে গত ১৫ মার্চ নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ এলাকায় দুটি মসজিদে বন্দুক নিয়ে হামলায় ৫০ জন নিহত এবং আরও ৭০ জনের মতো আহত হন।

ইএইচ/এপ্রি০৮/২০১৯/১৫৫০

*

*

আরও পড়ুন