বিটিসিএলের গ্রাহক সেবা অটোমেশন করতে মন্ত্রীর নির্দেশ

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ কোম্পানি লিমিটেডকে গ্রাহকদের জন্য সব সেবা অটোমেশন করার নির্দেশ দিয়েছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

গ্রাহক সেবা নিশ্চিত করতে মন্ত্রী বিদ্যমান জনবলকে আধুনিক প্রযুক্তি উপযোগী করে তৈরি, বিডি ডোমেইন নিবন্ধন ফি ও টেলিফোন সংযোগের ডিমান্ড নোট পদ্ধতি পরিবর্তন, গ্রাহক সেবা অটোমেশন করে বিটিসিএলকে জনবান্ধব ও লাভজনক প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলতে লাগসই কর্মসূচী গ্রহণ ও বাস্তবায়নে সংশ্লিষ্টদের কাজ করতে বলেন।

তিনি বলেন, বিটিসিএলকে জনবান্ধব এবং লাভজনক প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলতে সংশ্লিষ্টদের আরও আন্তরিকতা, নিষ্ঠা এবং সর্বোচ্চ সেবার মানসিকতা নিয়ে কাজ করতে হবে।

বৃহস্পতিবার মন্ত্রী বিটিসিএল সদর দপ্তরে কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় অনুষ্ঠানে এমন নির্দেশনা দেন।

মতবিনিময় অনুষ্ঠানে বিটিসিএলের বিভিন্ন কর্মকাণ্ড সম্পর্কে মন্ত্রীকে জানানো হয়। পরে মন্ত্রী সেসবে নিজের মতামত ব্যক্ত করেন।

ডিমান্ড নোট পদ্ধতির পরিবর্তন ঘটিয়ে অটোমেশন পদ্ধতিতে ঘরে বসেই যাতে গ্রাহক সেবা পেতে পারেন এ বিষয়েও তিনি করণীয় বিষয়ে দিক-নির্দেশনা দেন।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, বিশ্ব ব্যাংকের হিসাব অনুযায়ী বিশ্বের শীর্ষ পাঁচ ক্রমবর্ধমান অর্থনৈতির দেশে ঢুকেছে বাংলাদেশ। অগ্রযাত্রা আরও বেগবান করতে ২০২১ সাল থেকে ২০২৩ সালের মধ্যে দেশ ফাইভজি প্রযুক্তির যুগে প্রবেশ করবে। শহর এবং গ্রামের মধ্যে ডিজিটাল বৈষম্য যাতে না হয় সেই লক্ষ্যে দেশের ইউনিয়ন পর্যন্ত বিদ্যমান ব্রডব্যান্ড নেটওয়ার্ক ফাইভজি উপযোগী করার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করেন মন্ত্রী।

তিনি বিটিসিলের টেলিফোন ভিত্তিক ইন্টারনেট ব্রডব্যান্ড সেবা এডিএসএল ও জিপন কিভাবে আরও গ্রাহক আকৃষ্ট করা যায় সে বিষয়ে করণীয় সম্পর্কে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দেন।

এছাড়াও তিনি এসব কিছু থেকে পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে প্রতিষ্ঠানটির আয় বৃদ্ধির বিষয়টির ওপরও গুরুত্ব দেন।

তিনি কোন অন্যায়ের কাছে মাথা নত না করে প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তাদেরকে নতুন উদ্যোমে কাজ করতে বলেন।

অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব অশোক কুমার বিশ্বাস এবং বিটিসিএল ব্যবস্থাপনা পরিচালক হারুন অর রশীদ এবং উপ-মহাব্যবস্থাপক খান আতাউর রহমান বক্তৃতা করেন।

ইএইচ/এপ্রি০৪/২০১৯/১৮১০

*

*

আরও পড়ুন