Techno Header Top and Before feature image

হাল ছাড়লো অ্যাপল, আসছে না এয়ারপাওয়ার

Airpower-techshohor

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : পরিকল্পনা অনুযায়ী তৈরি করতে না পারায় এয়ারপাওয়ার প্রকল্পের ইতি টানলো অ্যাপল।

এতদিন নানা জল্পনা কল্পনা চলার পর এবার খোদ টেক জায়ান্টটি জানিয়েছে, অনেক চেষ্টার পরেও এয়ারপাওয়ারের মান অন্যান্য অ্যাপল পণ্যের সমতুল্য করা সম্ভব হয়নি। তাই প্রকল্পটি বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমরা। কোন কারণে এয়ারপাওয়ারের কাঙ্ক্ষিত মান অর্জন করা যায়নি তার ব্যাখ্যা দেয়নি অ্যাপল।

তবে সংবাদ মাধ্যম বিবিসির কাছে পাঠানো এক বিবৃতিতে কোম্পানিটির হেড অব হার্ডওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং ড্যান রিসিও বলেন, এয়ারপাওয়ারের জন্য অধীর আগ্রহে থাকা ক্রেতাদের কাছে আমরা ক্ষমা চাচ্ছি। আমরা বিশ্বাস করি, আগামীর প্রযুক্তিগুলো হবে ওয়্যারলেস কেন্দ্রিক। ওয়্যারলেস পণ্য ব্যবহারের অভিজ্ঞতা দিতে আমরা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।

সম্প্রতি এয়ারপড ২ উন্মোচন করার সময় অ্যাপল জানিয়েছিলো, ভবিষ্যতে ডিভাইসটি এয়ারপাওয়ারের মাধ্যমেও চার্জ করা যাবে। এমনকি ডিভাইসটির প্যাকেটেও লেখা রয়েছে কীভাবে এয়ারপাওয়ার কাজ করবে। তাই ধারণা করা হচ্ছে, এয়ারপাওয়ার বাজারে না আসার ফলে এয়ারপড ২ বিক্রির পরিমাণ কমে যাবে।

২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে এক টিজারের মাধ্যমে এয়ারপাওয়ার আনার ঘোষণা দিয়েছিলো অ্যাপল। সে সময় জানা যায়, এয়ারপাওয়ার হলো মূলত একটি চার্জিং ম্যাট। এর মাধ্যমে এয়ারপড, অ্যাপল ওয়াচ ও আইফোন চার্জ করা যাবে। তখন জানানো হয়েছিলো ২০১৮ সালে ডিভাইসটি বাজারে আসবে। কিন্তু এয়ারপাওয়ারের বিষয়ে গত দেড় বছরে আর কোনো তথ্য প্রকাশ করেনি অ্যাপল।

এ বিষয়ে প্রযুক্তি বিশ্লেষক সনি ডিকসন তখন জানান, সাধারণত ওয়্যারলেস চার্জারে একটি কয়েলই থাকে। কিন্তু একত্রে অনেকগুলো ডিভাইস চার্জ করার লক্ষ্যে কয়েলের সংখ্যা বাড়িয়ে দিয়েছে অ্যাপলের প্রকৌশলীরা। ধারণা করা হচ্ছে, সংখ্যাটি ১৬ থেকে ২৪।  অনেকগুলো কয়েল থাকার ফলেই চার্জে দেওয়া ডিভাইসগুলো অতিরিক্ত গরম হয়ে যাচ্ছে। এয়ারপাওয়ারের চিপটিও অ্যাপল ডিভাইসগুলোর সঙ্গে সমন্বয় করতে পারছে না।

বিবিসি অবলম্বনে এজেড/মার্চ ৩০/২০১৯/১২৫১

*

*

আরও পড়ুন