দেশে হুয়াওয়ের ফোল্ডেবল ফাইভজি ফোন

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দেশে বহুল আলোচিত ফোল্ডেবল ফাইভজি ফোন দেখালো চীনা প্রযুক্তি পণ্য নির্মাতা হুয়াওয়ে। 

রোববার রাজধানীতে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সেটি সাংবাদিকদের সামনে বিস্তারিত জানাবে হুয়াওয়ে। তবে তার আগেই পাঠকদের জন্য ফোনটি নিয়ে হাজির হয়েছে টেকশহরডটকম।

এক লাইভে ফোনটি দেখানো, এর কনফিগারেশনের বিস্তারিত, দাম এবং কবে নাগাদ আসতে পারে সে সম্পর্কে কথা বলেন হুয়াওয়ের কর্মকর্তারা। 

এর আগে গত ফেব্রুয়ারিতে বার্সেলোনায় মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে ফোনটি প্রথম উন্মোচন করে হুয়াওয়ে। এরপর সাম্প্রতিক সময়ে ফোনটি এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের কিছু দেশে দেখানো হয়। 

ইতোমধ্যে এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলের মালোয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, ইন্দোনেশিয়া এবং থ্যাইল্যান্ডে শোকেস করেছে। এসব এলাকার পরই বাংলাদেশে দেখালো ফোনটি।  

চলতি বছরের মাঝামাঝিতে মেইট এক্স ফোনটি বাজারে ছাড়তে পারে চীনা জায়ান্টটি। তার আগে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ফোনটি দেখাচ্ছে এবং আগ্রহীদের ফিডব্যাক নিচ্ছে  হুয়াওয়ে। 

মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে উন্মোচনের পর সেটি ৩১টি পুরস্কারও জিতে নিয়েছে আয়োজনটিতে। 

ফোনটির পর্দা বাইরের দিকে ভাঁজ করা যাবে। ভাঁজ ছাড়া অবস্থায় এর পর্দা অ্যামোলেড আট ইঞ্চি হবে। আর ভাঁজ করলে এটি একটি স্মার্টফোনের মতো আকার দেয়া যাবে। তবে সেক্ষেত্রেও  

ফোল্ডেবল ফাইভজি ফোনটির পর্দার রেজ্যুলেশন ২৪৮০*২২০০ পিক্সেল। ফোনটি ফোর সামনের দিকে স্ক্রিন হবে ৬.৬ ইঞ্চি এবং পিছনে ৬.৩৮ ইঞ্চি।পাওয়ার বাটনেই থাকছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট।

ফোনটিকে বিশ্বের সবেচয়ে দ্রুত গতির ফাইভজি ফোন হিসেবে দাবি করছে হুয়াওয়ে। তারা বলছে, এতে প্রতি সেকেন্ডে ফাইভজি নেটওয়ার্কে ৫৬০ মেগাবাইট মুভি ডাউনলোড করতে সক্ষম। যাতে রয়েছে ৭ ন্যানোমিটার মাল্টি মোড মডেম চিপসেট।  

দুটি ভাগে ভাগ করে ফোনটির ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে ৪৫০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার। হুয়াওয়ে দাবি করছে, তাদের মেইট এক্স ফোল্ডেবল ফাইভজি ফোনটি ৫৫ ওয়াট প্রযুক্তি চালিত। ফলে মাত্র ৩০ মিনিটে ৮৫ শতাংশ চার্জ হবে।

ফোনটি নিয়ে এবং অন্যান্য আরও ভিডিও পেতে সাবস্ক্রাইব করুন টেকশহরের ইউটিউব চ্যানেল।

ইএইচ/মার্চ ২৪/২০১৯/১৮৩৫

*

*