নোটিফিকেশন দেখার জন্যই স্মার্টওয়াচ কেনেন?

smartwatch-techshohor
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : যতোটা হাইপ তুলে বাজারে এসেছিলো ততটা জনপ্রিয়তা পায়নি স্মার্টওয়াচ ও ফিটনেস ট্র্যাকারের মতো ওয়্যারেবল ডিভাইসগুলো।

কয়েক বছর ধরে বাজারে থাকলেও স্মার্টওয়াচ ও ফিটনেস ট্র্যাকারের মূল ক্রেতা শুধু স্বাস্থ্য সচেতন ব্যক্তিরা।

কতো শতাংশ মানুষ ওয়্যারেবল ডিভাইস ব্যবহার করেন তা জানতে নিজেদের ওয়েবসাইটে ও ইউটিউবে জরিপ চালিয়েছিলো সংবাদ মাধ্যম অ্যান্ড্রয়েড অথোরিটি। দুটি মাধ্যমে ভোট পড়েছে ৫০ হাজার। গড়ে ৪১ শতাংশ ভোটার জানিয়েছেন, তাদের ওয়্যারেবল ডিভাইস নেই। ৩১ শতাংশ অংশগ্রহণকারী জানিয়েছেন, তাদের স্মার্টওয়াচ আছে।

ফিটনেস ট্র্যাকার ব্যবহার করেন ১৮ শতাংশ। স্মার্টওয়াচের মালিক হলেও তা ব্যবহার করেন না সাড়ে পাঁচ শতাংশ। হাইব্রিড ওয়াচ ব্যবহার করেন গড়ে সাড়ে চার শতাংশ। হাইব্রিড ওয়াচ হলো স্মার্টওয়াচ ও প্রচলিত হাত ঘড়ির মিশেল। এতে কোনো চাট স্ক্রিন নেই। এতে থাকা বাটনের সাহায্যে ফোনের ক্যামেরা নিয়ন্ত্রণ করা বা গান শোনা যায়।

জরিপে অংশ নেওয়া বেশিরভাগ মানুষ মন্তব্যে জানিয়েছেন, ফিটনেস ট্র্যাকারের চেয়ে স্মার্টওয়াচ ব্যবহার করতেই তারা বেশি পছন্দ করেন। কারণ ফিটনেস ট্র্যাক করার পাশাপাশি বিভিন্ন নোটিফিকেশন দেখারও সুযোগ মেলে স্মার্টওয়াচে।

ওয়্যারেবল ডিভাইসের বাজার দখলে রেখেছে মূলত টেক জায়ান্ট কোম্পানিগুলো। গত ডিসেম্বরের হিসাব অনুযায়ী ওয়্যারেবল ডিভাইস সরবরাহের দিক দিয়ে শীর্ষে আছে শাওমি, অ্যাপল, ফিটবিট, হুয়াওয়ে ও স্যামসাং।

অ্যান্ড্রয়েড অথোরিটি অবলম্বনে এজেড/ মার্চ ২৪/ ২০১৯/১৩৫০

*

*

আরও পড়ুন