দুই মাসের মধ্যে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটে চলবে দেশের সব টিভি

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দেশের সব টিভি ১২ মে’র মধ্যে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট হতে ব্রডকাস্ট কার্যক্রম চালাবে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। 

সোমববার সচিবালয়ে বেসরকারি টেলিভিশন মালিকদের সংগঠন অ্যাটকোর সঙ্গে এক বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান মন্ত্রী।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের এক বছর পূর্তির মধ্যেই এর মাধ্যমে দেশের সব টেলিভিশনের সম্প্রচারের ব্যবস্থা করা হবে। আর শুরুর তিন মাস টেলিভিশনগুলো বিনামূল্যে সেবা পাবে। ফাইবার অপটিক ক্যাবলে টেলিভিশন সম্প্রচারের ডেটা গাজীপুরের সজীব ওয়াজেদ গ্রাউন্ড স্টেশনে নেওয়া হবে। সেখান থেকে আপলিঙ্ক এবং ডাউনলিঙ্ক করা হবে। 

১২ মে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের এক বছর পূর্তি হচ্ছে। 

তথ্যমন্ত্রী বলেন, এই সময়ের মধ্যে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট কর্তৃপক্ষ সবার সঙ্গে আলোচনা দরদাম ঠিক করবে। 

সম্প্রচারে বাংলাদেশের টেলিভিশন চ্যানেলগুলোকে একই সিরিয়ালে থাকবে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, সরকারি চ্যানেল প্রথমে এরপর সম্প্রচারের তারিখ অনুযায়ী অন্য চ্যানেলগুলো সিরিয়ালে থাকবে। তারপর আসবে বিদেশি চ্যানেলগুলো। 

বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান, প্রধানমন্ত্রীর সাবেক তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, তথ্য সচিব আবদুল মালেক, বাংলাদেশ কমিউনিকেশন্স স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেডের (বিসিএসসিএল) চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদসহ বিভিন্ন টিভির উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা অংশ নিয়েছিলেন।

এর আগে ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট হতে ব্রডকাস্ট সুবিধা নিতে সবগুলো বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলকে অনুরোধ জানিয়ে চিঠি দেয় তথ্য মন্ত্রণালয়।

ওই বছরেই ১১ মে (বাংলাদেশের ১২ মে) যুক্তরাষ্ট্রের কেপ কার্নিভাল থেকে দেশের প্রথম স্যাটেলাইট মহাকাশে উৎক্ষেপণ হয়। সব মিলে স্যাটেলাইটটি উৎক্ষেপণ করতে খরচ হয়েছে দুই হাজার ৭৬৫ কোটি টাকা।

আগমী সাত বছরের মধ্যে এই খরচ উঠবে আসবে বলে ধারণা হিসাব করেছে উৎক্ষেপণকারী সংস্থা বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

আরো পড়ুন ঃ-  দশ টিভি চ্যানেল ব্যবহার করছে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট 

গুজবের কবলে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট   

এডি/মার্চ১১/২০১৯/১৯২৩

*

*

আরও পড়ুন