স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপ প্রতিযোগিতা শুরু

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দেশের বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের নিয়ে শুরু হলো ‘স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপ’ প্রতিযোগিতা।

মূলত তরুণদের উদ্ভাবনী ভাবনা, উদ্যোগ ও স্টার্টআপকে ভালো একটা প্লাটফর্ম দিতেই এমন উদ্যোগ নিয়েছে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের ইনোভেশন ডিজাইন অ্যান্ড এন্ট্রাপ্রেনারশিপ একাডেমি-আইডিয়া প্রকল্প এবং ইয়াং বাংলা।

শুক্রবার প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

‘আমার উদ্ভাবন, আমার স্বপ্ন’ শিরোনামে প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পলক বলেন, এই প্রকল্প নেবার একটাই কারণ, তা হলো কোন শিক্ষার্থী যেন না বলতে পারেন তিনি তার আইডিয়াকে ফান্ডের অভাবে এগিয়ে নিতে পারেনি। সেটা ডিজিটাল বাংলাদেশে হতে দেবো না বলেই এমন প্রকল্প নেওয়া।

তিনি বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ ভিশন যে দেওয়া হয়েছে তা তরুণদের সামনে রেখেই। প্রধানমন্ত্রী চান তরুণরাই এই দেশটাকে প্রকৃত ডিজিটাল বাংলাদেশ হিসেবে গড়ে তুলুক। তাই তরুণদের চাহিদা সবসময় আমরা পূরণ করতে প্রস্তুত, বলেন তিনি।

স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপ আয়োজনের মধ্য দিয়ে চলমান বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের উদ্ভাবনী ভাবনা ও পরিকল্পনা সংগ্রহ করা হবে। একইসঙ্গে প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়া শিক্ষার্থীদের প্রতিষ্ঠান পরিচালনা, চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা এবং ভবিষ্যতে এগিয়ে যাওয়ার বিষয়ে খুঁটিনাটি ধারণাগুলো নিয়ে কাজ করা হবে।

এর মধ্যে দিয়ে দেশের আট বিভাগ থেকে ৪০টি বিশ্ববিদ্যালয়কে কেন্দ্র করে পরিচালিত হবে ‘স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপ : চ্যাপ্টার ওয়ান’ প্রতিযোগিতা। নিজ নিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশাপাশি অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের হয়েও অংশ নিতে পারবেন শিক্ষার্থীরা।

আয়োজক সংশ্লিষ্টরা জানান, স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপে প্রতিটি বিশ্ববিদালয়ে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে সহায়তা করবে ইয়াং বাংলার ক্যাম্পাস অ্যাম্বাসেডররা।ক্যাম্পাস পর্যায়ের প্রতিযোগিতায় প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাছাই করা হবে তিনটি করে দলকে। ৪০টি বিশ্ববিদ্যালয়ে ১২০টি দল নিয়ে সাভারে অনুষ্ঠিত হবে ‘জাতীয় স্টার্টআপ ক্যাম্প’।

পরে দর্শক এবং বিচারকদের ভোটে বাছাই করা হবে মূল প্রতিযোগিতার শীর্ষ ৩০ স্টার্টআপ। এরপর জাতীয় পর্যায়ে সেরা ১০ উদ্ভাবনী ভাবনা বা স্টার্টআপ নির্বাচন করবেন ‘আইডিয়া’ প্রকল্পের বাছাই কমিটি এবং অন্যান্য বিচারকরা।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপিস্থত ছিলেন তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সচিব জিয়াউল আলম, ‘আইডিয়া’ প্রকল্পের পরিচালক সৈয়দ মজিবুল হক, বাংলাদেশে কম্পিউটার কাউন্সিলের (বিসিসি) নির্বাহী পরিচালক পার্থ প্রতিম দেবসহ ইয়াং বাংলা ও মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা।

ইএইচ/মার্চ০৮/২০১৯/১৪৩৫

২ টি মতামত

    • tahmina tania said:

      দেশের আট বিভাগ থেকে ৪০টি বিশ্ববিদ্যালয়কে কেন্দ্র করে পরিচালিত হবে ‘স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপ : চ্যাপ্টার ওয়ান’ প্রতিযোগিতা। নিজ নিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশাপাশি অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের হয়েও অংশ নিতে পারবেন শিক্ষার্থীরা।আয়োজক সংশ্লিষ্টরা জানান, স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপে প্রতিটি বিশ্ববিদালয়ে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে সহায়তা করবে ইয়াং বাংলার ক্যাম্পাস অ্যাম্বাসেডররা।
      ক্যাম্পাস পর্যায়ের প্রতিযোগিতায় প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাছাই করা হবে তিনটি করে দলকে। ৪০টি বিশ্ববিদ্যালয়ে ১২০টি দল নিয়ে সাভারে অনুষ্ঠিত হবে ‘জাতীয় স্টার্টআপ ক্যাম্প’। — তাই আপনাকে আপনার প্রতিস্ঠানের সাথে যোগাযোগ করতে হবে ।

*

*

আরও পড়ুন