বিদেশি সেবা নেওয়ার ট্রেন্ড বদলাতে চায় বিজকোপ

Bizcoper-team-3-TechShohor

চার বছরে ১১৩ ওয়েবসাইট তৈরি, তিন শতাধিক প্রতিষ্ঠানকে সেবা দিয়েছে বিজকোপ। ইন্টারনেট মার্কেটিং এবং ওয়েব ডেভেলপমেন্টে সফল এক দলগত প্রচেষ্টার উদাহরণ প্রতিষ্ঠানটি। এর পেছনের তরুণ উদ্যোক্তার গল্প শোনাচ্ছেন তুহিন মাহমুদ

ঢাকার ছেলে নাহিদ হাসান পেশায় মূলত ইন্টারনেট মার্কেটার। একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক শেষে এখন পেশা হিসাবে এটিকেই বেছে নিয়েছেন। অন্য কোথাও চাকরি না করে উদ্যোগ নিয়েছেন নিজের কাজের ক্ষেত্রে তৈরির। যা তাকে আরও অনেকের কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি করে দিয়েছে।

Nahid-Hasan-Bizcoper-TechShohor

Techshohor Youtube

হাঁটি হাঁটি পা পা করে গড়ে তুলেছেন ১৮ জনের একটি দল। প্রতিষ্ঠা করেছেন ইন্টারনেট মার্কেটিং প্রতিষ্ঠান বিজকোপ। প্রধান নির্বাহী হিসেবে সফল একটি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন নাহিদ, যারা বিদেশের পাশাপাশি দেশি বাজারেও কাজে সফলতা দেখিয়েছেন।

তরুণ এ উদ্যোক্তার গড়ে তোলা প্রতিষ্ঠানটি ইন্টারনেট মার্কেটিংয়ের পাশাপাশি ওয়েব ডেভেলপমেন্ট সম্পর্কিত বিভিন্ন ধরণের সেবাও দিয়ে থাকে।

শুরুটা যেভাবে
স্বপ্নের এ উদ্যোগের শুরুর কথা বলতে গিয়ে নাহিদ জানান, তিনি ছোটবেলা থেকেই ‘আমি’ বলার বিপরীতে ‘আমরা’ বলতে বেশি স্বাচ্ছন্দবোধ করতেন। খেলাধুলা থেকে শুরু করে সব ক্ষেত্রেই তিনি ব্যক্তিগত অগ্রগতির চাইতে দলগত অগ্রগতি বেশি উপভোগ করতেন।

এরই ধারাবাহিকতায় একজন ফ্রিল্যান্সার হিসেবে পেশাগত জীবন শুরুর সময়ও সিদ্ধান্ত নেন, একা কাজ না করে দলগতভাবে কাজ করার। সেই ভাবনা থেকেই প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার তৈরির কাজ শুরু করেন।

Bizcope-logo-TechShohor

ছাত্রজীবন থেকে লেখালেখির সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন। তাই ফ্রিল্যান্সিং কাজের পাশাপাশি ব্লগিংও করেন। নিজের একটি প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার পরিকল্পনায় ২০১০ সালের জুনে আউটসোর্স বিডি নামে একটি প্রতিষ্ঠানের যাত্রা শুরু করেন। সঙ্গে ছিলেন আরও চার জন।

তিন বছর পরে ২০১৩ সালের শেষের দিকে বিজকোপ নামে রিব্যান্ডিং শুরু করেন। বর্তমানে প্রতিষ্ঠানটিতে ১৮ জন কর্মরত আছেন।

এসেছে নানা প্রতিবন্ধকতা
শুরুর দিকে বিজকোপের সবাই মিলে ভার্চুয়ালি কাজ করতেন। তখন ভার্চুয়ালি ট্রাকিং সিস্টেম হতে শুরু করে সবকিছু সেটআপ করতে হয়েছিল, যা খুব একটা সহজ ছিল না।

তবে কাজের গতি বাড়াতে একই ছাদের নিচে কাজ করাটাও জরুরি হয়ে পড়ে। তখন আর্থিক দিক থেকেও অফিস সেটআপ করাটাও সহজ ছিল না। আবার অফিস চালানোর জন্য চাই ম্যানেজমেন্ট স্কিল। শুরুতে এসব সমস্যার মুখোমুখি হয়েছেন তিনি। তবে প্রতিটা ধাপেই নাহিদ প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে এগিয়ে গেছেন।

এগিয়ে চলা
প্রতিটি ক্ষেত্রেই নাহিদ ও বিজকোপ সদস্যরা দলগতভাবে কাজ করেছেন। যারা তথ্যপ্রযুক্তি খাতের খোঁজখবর রাখেন এমন কিছু চেনা মুখ বেছে নেন তারা। এরপর তাদেরকে নিজের অভিজ্ঞতা দিয়ে প্রশিক্ষিত করেন। শুরু করেন নতুন অফিস সেটআপ।

Bizcoper-team-2-TechShohor

অফিস নেওয়ার পর অনুধাবন করলেন কিছু কারিগরি ও কৌশলগত সমস্যা রয়েছে, যেগুলোর সমাধান না করলে ১০ বছর পরে সমস্যা হতে পারে। তাই রিব্র্যান্ডিংয়ের কাজ শুরু করেন। এখন ২০২৪ সালে নিজেদেরকে কি অবস্থানে দেখতে চান সেভাবেই কাজ করছেন।

বর্তমান পেক্ষাপট
চার বছরের পথচলায় প্রায় ১১৩টি ওয়েবসাইট তৈরি করেছেন। তিন শতাধিক প্রতিষ্ঠানকে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (এসইও), সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং (এসএমএম) ও ডেভেলপমেন্ট সেবা দিয়েছেন।

গত বছর পর্যন্ত বিজকোপ শুধু মার্কেটিং কাজকেই প্রাধান্য দিয়েছে। তখন মূল লক্ষ্য ছিলো শুধু বিদেশি গ্রাহক পাওয়া। কিন্তু এখন নিজেদের সেবা দেওয়ার পরিধি বাড়িয়েছেন।

Bizcoper-team-TechShohor

নাহিদের মতে যেহেতু এসইও এবং ইন্টারনেট মার্কেটিং লম্বা সময়ের জন্য হয়, তাই একসঙ্গে অধিক গ্রাহকের প্রয়োজন হয় না। বিজকোপের এমন কিছু গ্রাহক রয়েছে যাদের সঙ্গে টানা চার বছর ধরে কাজ করছেন। তাদের সন্তুষ্ঠির মাধ্যমে নতুন গ্রাহক পাচ্ছেন তারা।

এখন ওয়েব ডেভেলপমেন্ট এবং ভিডিও মার্কেটিং নিয়েও কাজ শুরু করেছেন। স্থানীয় মার্কেটেও ব্যবসার প্রচারণার জন্য ইন্টারনেট মার্কেটিং প্রচারণার সেবা দিতে প্রস্তুত বিজকোপ বলে জানান তরুণ এ উদ্যোক্তা।

চলার পথে অনুপ্রেরণা
নাহিদ মনে করেন তার এতদূর আসার পেছনে অনেকেরই অনুপ্রেরণা রয়েছে। তার পিতা-মাতা কখনই চাকরি করার জন্য তাকে চাপাচাপি করেননি। বরং নিজে উদ্যোক্তা হওয়ার মাধ্যমে যাতে অন্যের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে পারেন সে জন্য অনুপ্রেরণা দিয়েছেন। এ ছাড়া টিমের সদস্যরা প্রত্যেকে কাধে কাধ মিলিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। যা তাকে প্রতিনিয়ত অনুপ্রেরণা যোগায়।

Bizcoper-team-3-TechShohor

প্রচারণা
এতদিন স্থানীয় মার্কেট নিয়ে তেমন পরিকল্পনা না থাকায় দেশী মিডিয়াতে প্রচারণায় কাজ করেননি। তবে পার্সোনাল ব্র্যান্ডিংয়ের কাজ করেছেন। তবে এখন নতুন করে প্রচারণার পরিকল্পনা সাজাচ্ছেন নাহিদ।

নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করার জন্য ব্যক্তিগত ব্লগে (http://www.bn.nahidhasan.com) নিয়মিত লেখালেখি করেন। অন্যদিকে গ্রাহকদের আকৃষ্ট করতে বিভিন্ন ওয়েবসাইটে নিয়মিত অতিথি লেখক হিসেবে লিখছেন। এভাবেই চলছে নবীন এ উদ্যোক্তার মূল প্রচারণা।

সঙ্গে রয়েছে টুইটার এবং লিংকডইনের মাধ্যমে নিয়মিত সবার সঙ্গে যোগাযোগ। তালিকা প্রস্তুত করার মাধ্যমে গত চার বছর ধরে ই-মেইল মার্কেটিংও চালাচ্ছেন। ফেইসবুক এবং গুগল অ্যাডওয়ার্ডে বিজ্ঞাপন দিচ্ছেন।

আগামীর পরিকল্পনা
বর্তমানে বাজেট বেশি থাকলে গুণগত পণ্য বা সেবার জন্য সবাই বিদেশি প্রতিষ্ঠানের সেবা নেয়। তবে বাজেট কম হলে তখন বাংলাদেশসহ উন্নয়নশীল দেশগুলোর প্রতিষ্ঠানকে বেছে নেয়। সেবাগ্রহীতাদের এ মনোভাব বদলাতে চান নাহিদ এবং তার বিজকোপের তরুণ দলটি।

দেশেও যে ভালোমানের পণ্য ও সেবা পাওয়া যায় সেই মনোভাব তৈরির জন্য কাজ শুরু করেছেন, যা আগামীতেও চালিয়ে যাবেন বলে জানান সফল এ সংগঠক।

এ ছাড়া আগামীতে আরও বেশি মানুষের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে চায় বিজকোপ। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে এটিকে একটি স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান হিসেবে পরিচিত করে তুলতে কাজ করছেন সকলে মিলে। স্বপ্নটা কঠিন হলেও বাস্তবে রুপ দিতে চান তারা।

নতুনদের জন্য পরামর্শ
নাহিদের মতে, নবীন উদ্যোক্তাদের সবার প্রথমে হিন্দি মুভি ‘থ্রি ইডিয়টস’ দেখা উচিত। এরপর নিজের ইচ্ছা, ভালো লাগা, পাগলামি সম্পর্কে আইডিয়া নিতে হবে। সবকিছুর পরও যদি এটি মনে ধরে যায়, তাহলেই শুধু সেটি এগিয়ে নিতে কাজে নেমে পড়া।

তার মতে, কিছুদিন কাজ করে বাস্তব অভিজ্ঞতা নেওয়া উচিত। একই সঙ্গে অভিজ্ঞদের সঙ্গে পরামর্শ করলে শুরুর পথচলা অনেকটাই সহজ হয়ে যাবে। সঙ্গে থাকতে হবে ধৈর্য্য। তাহলে সফল হওয়া সম্ভব।

যোগাযোগ
প্রতিষ্ঠানের ওয়েব সাইট : http://www.bizcope.com
ইমেইল : [email protected]
ফেইসবুক পেইজ : https://www.facebook.com/bizcope
ব্যক্তিগত ব্লগ : http://www.bn.nahidhasan.com
ফেইসবুকে নাহিদ হাসান : http://facebook.com/nahidhasandotcom
গুগল প্লাস : http://plus.google.com/+NahidHasan
ফোন : +৮৮০৪৪৭৭৯৭২৬২৯ (শনিবার থেকে বৃহস্পতিবার, সকাল ১০ টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা)

*

*

আরও পড়ুন