ইলেক্ট্রিক স্কুটার যখন দুর্ঘটনার কারণ

scooter-techshohor
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ইলেকট্রিক স্কুটারের মাধ্যমে স্বল্প দূরত্বের যাতায়াতকে বেশ সহজ করে তুলেছে রাইড শেয়ারিং কোম্পানিগুলো। কিন্তু এই স্কুটারগুলো চালানোতে দুর্ঘটনার সংখ্যাও বেড়ে গেছে।

সম্প্রতি ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ার এক জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে। মেডিকেল বা ক্লিনিকের ইমার্জেন্সি ডিপার্টমেন্টের রিপোর্ট ঘেঁটে দেখা গেছে, ২০১৭ সালের ১ সেপ্টেম্বর থেকে ২০১৮ সালের ৩১ আগস্ট পর্যন্ত ২৪৯টি স্কুটার দুর্ঘটনা ঘটেছে। এসব দুর্ঘটনায় আহত এক তৃতীয়াংশ ব্যক্তিকে অ্যাম্বুলেন্সে করে হাসপাতালে আনা হয়েছে।

ইমার্জেন্সি ফিজিশিয়ান ডাক্তার তারাক ত্রিবেদি জানান, এগুলো কোনো ছোটখাটো কাটাছেঁড়া নয়। অনেকেরই স্কুটার চালিয়ে হাত-পা ভেঙেছে কিংবা মাথায় আঘাত লেগেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের সান্টা মনিকায় সর্বপ্রথম বার্ড নামের একটি কোম্পানি অ্যাপের মাধ্যমে স্কুটার ভাড়া দেওয়া শুরু করে। এরপর আরও প্রায় ১২টি কোম্পানি পুরো যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে ১০০টি শহরে স্কুটার ভাড়া দেয়।

ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ার গবেষকরা জানিয়েছেন, স্কুটার থেকে পরে গিয়ে দুর্ঘটনা ঘটেছে ৭৪ শতাংশ। কোনো কিছুর সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে আঘাত পাওয়ার ঘটনা ঘটেছে ১০ শতাংশ। বাকি ৮ শতাংশ দুর্ঘটনার শিকার হয়েছেন পথচারীরা। তারা স্কুটারের সঙ্গে ধাক্কা খেয়েছেন নয়তো হোঁচট খেয়েছেন।

দুর্ঘটনায় পড়া ৪০ শতাংশ রাইডার মাথায় আঘাত পেয়েছেন। হাড়ে ফাটল ধরেছে বা ভেঙেছে ৩২ শতাংশের। হাত-পা কেটে গেছে বা মোচকে গেছে ২৮ শতাংশের। দুর্ঘটনার সময় মাত্র ৪ শতাংশ রাইডার হেলমেট পরেছিলেন। ডাক্তার ত্রিবেদি জানিয়েছেন, ঘণ্টায় ১৫ মাইল বেগে হেলমেট ছাড়া স্কুটার চালানোটা উদ্বেগজনক।

সিনেট অবলম্বনে এজেড/জানু ২৭/২০১৯/১৫২৫

*

*