এক হচ্ছে ম্যাসেঞ্জার, হোয়াটসঅ্যাপ ও ইনস্টাগ্রামের ম্যাসেজ

facebook-techshohor1

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ফেইসবুক ম্যাসেঞ্জার, হোয়াটসঅ্যাপ ও ইনস্টাগ্রামের ম্যাসেজিং সার্ভিস একীভূত হয়ে যাচ্ছে।

অ্যাপগুলোর মধ্যে সংযোগ সৃষ্টি করলে একটি অ্যাপের ম্যাসেজ অন্য দুটি অ্যাপে পাঠানো সম্ভব হবে। যেমন কোনো ফেইসবুক ব্যবহারকারী চাইলে হোয়াটসঅ্যাপের ব্যবহারকারীর সঙ্গে ম্যাসেজ চালাচালি করতে পারবেন। তবে প্রত্যেকটি আলাদা আলাদা অ্যাপ হিসেবেই থাকবে।

এটি মার্ক জাকারবার্গের নিজস্ব প্রকল্প বলে জানিয়েছে সংবাদ মাধ্যম নিউইয়র্ক টাইমস।

ফেইসবুক জানিয়েছে, এটি অনেক লম্বা প্রক্রিয়া। তিনটি অ্যাপের ম্যাসেজিং সার্ভিস একীভূতকরণের কাজ শুরু হয়ে গেছে। এ বছরের শেষ নাগাদ বা সামনের বছরের শুরুতে পুরো প্রক্রিয়াটি শেষ হবে।

এই একত্রীকরণের ফলে ফেইসবুকের কাজ অনেক কমে যাবে। আগে প্রতিটি অ্যাপের জন্যই আলাদা করে ফিচার তৈরি করতে হতো। যেমন তিনটি প্ল্যাটফর্মেই স্টোরিজ ফিচারটি যুক্ত করা হয়েছে। একীভূত হলে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে আর প্রত্যেকটি প্ল্যাটফর্মে আলাদাভাবে নতুন ফিচার যোগ করতে হবে না। বিজ্ঞাপন দেখানোর ক্ষেত্রে পাওয়া যাবে বাড়তি সুবিধা। তিনটি অ্যাপের ম্যাসেজিং সার্ভিস এক হলে ব্যবহারকারীদের এতে সময় কাটানোর হারও অনেক বাড়বে।

এছাড়া, ফেইসবুকের সাম্রাজ্যও আরও শক্তিশালী হবে। কারণ গুগল ম্যাসেজিং সার্ভিস এমনিতেই ধুকে ধুকে চলছে আর অ্যাপলের আই ম্যাসেজ ব্যবহারকারীর সংখ্যাও খুব বেশি নয়।

ফেইসবুক এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, সহজ ম্যাসেজিং সেবায় গতি ও গোপনীয়তা চায় ব্যবহারকারীরা। গোপনীয়তা রক্ষায় আমরা ম্যাসেজিং সেবায় এন্ড টু এন্ড এনক্রিপশন আনতে কাজ করছি। বিবৃতিতে আরও জানানো হয়, একীভূতকরণের বিষয়টি নিয়ে অনেক আলোচনা ও মতবিনিময় হয়েছে।

সংবাদ মাধ্যম নিউইয়র্ক টাইমসের দাবি, এই সিদ্ধান্তের ফলে ইনস্টাগ্রাম ও হোয়াটসঅ্যাপের উপরে ফেইসবুকের আধিপত্য অনেক বাড়বে। আধিপত্যের বিষয়টি নিয়েই গত বছর ইনস্টাগ্রাম ও হোয়াটসঅ্যাপের প্রতিষ্ঠাতাদের সঙ্গে ফেইসবুকের অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্ব তৈরি হয়েছিলো।

আরও পড়ুন

ডেটা বিক্রি করে না ফেইসবুক : জাকারবার্গ

বিবিসি অবলম্বনে এজেড/জানু ২৬/২০১৯/১১৩০

*

*

আরও পড়ুন