পেটে সেন্সর নিয়ে স্মার্ট হবে গরু

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : গরু লালন-পালনের গুরুত্বপূর্ণ সব দায়িত্ব নিয়ে নিচ্ছে আইওটি প্রযুক্তি। এ
প্রযুক্তির সর্বাধুনিক পদ্ধতিটি ব্যবহার শুরু হয়েছে বাংলাদেশে।

নতুন এ প্রযুক্তির মাধ্যমে স্বয়ংক্রিয়ভাবে মোবাইলেই পাওয়া যাবে গরুর জাত নির্ণয় ও উন্নয়ন সংক্রান্ত সেবা, ডিজিটাল তথ্য সংরক্ষণ, হিট নির্ণয়, গর্ভধারণ অবস্থা, গরুর প্রসবের সম্ভাব্য সময় নির্ণয়, গরুর গতিবিধি ও তাপমাত্রা নির্ণয় এবং প্রাথমিক চিকিৎসার নির্দেশনা।

বুধবার রাজধানীর খামাড়বাড়ির কৃষিবিদ ইন্সটিটিশনে গরুর জন্য এই আইওটি প্রযুক্তি সেবা আনার কথা জানায় সূর্যমুখী লিমিটেড।

কোম্পানিটি এই প্রযুক্তির মাধ্যমে গরুর মৃত্য এবং স্থায়ী পঙ্গুতে বিমা সেবাও চালু করে।

সূর্যমুখী লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফিদা হক জানান, এই আইওটি প্রযুক্তিতে একটি  বায়োসেন্সর গবাদি প্রাণির পাকস্থলীতে স্থাপন করানো হয়। এই বায়োসেন্সর বা বোলাস প্রাণির পাকস্থলী থেকে রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি শনাক্তকরণ প্রক্রিয়ায় তথ্য তৈরি করবে এবং তা ক্লাউডে  পাঠাবে। আর  সফটওয়্যারের মাধ্যমে গবাদি পশুর দরকারি ও হালনাগাদ তথ্য খামারির মোবাইলে চলে যাবে।

তিনি বলেন , বোলাস এবং আনুষাঙ্গিক প্রযুক্তি অস্ট্রিয়ার স্ম্যাক্সটেক কোম্পানি হতে আনা হয়েছে।  নতুন প্রযুক্তির কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। স্ম্যাক্সটেক বোলাস গবাদি প্রাণীর পাকস্থলিতে অন্তত ৫ বছর কার্যকর থাকে।

যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিস্ট্রেশন, ফেডারেল কমিউনিকেশন কমিশন এবং জার্মান এগরিকালচার সোসাইটির স্বীকৃতি রয়েছে এই প্রযুক্তিতে, জানান ফিদা হক।

ইতোমধ্যে পাইলট প্রকল্পে প্রযুক্তিটির ব্যবহার চলছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ প্রাণীসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ডঃ নাথু রাম সরকার এই প্রযুক্তি যাতে সাধারণ কৃষকের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে থাকে সেদিকে জোর দিতে আহবান জানান।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবির, ফিনিক্স ইন্সিওরেন্সের নির্বাহী পরিচালক রফিকুর রহমান।

এডি/জানু২৩/২০১৮/২২৫৬

*

*

আরও পড়ুন