ব্যান্ডউইথের ব্যবহার এক হাজার জিবিপিএস

free internet-techshohor

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : দেশে ব্যান্ডউইথের ব্যবহার এক হাজার জিবিপিএস ছুঁয়েছে।

সাম্প্রতিক সময়ে দেশে ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথের ব্যবহার বৃদ্ধির যে গতি দেখা যাচ্ছিল তাতে ২০১৮ সালের ডিসেম্বরের শেষ নাগাদ এই মাইলফলক স্পর্শ হয়েছে বলে মনে করছেন খাত সংশ্লিষ্টরা।

আর ২০১৯ সালের ১৯ জানুয়ারি পর্যন্ত সময়ে এটি এক হাজার জিবিপিএস ছাড়িয়েছে বলে তাদের ধারণা। হিসাব অন্তত তাই বলে।

২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরের শেষ সপ্তাহে এটি ছিল ৮০০ জিবিপিএস, নভেম্বর শেষ হতে না হতে সেটা পেরুলো ৯৪০ জিবিপিএস। ডিসেম্বরের আনুষ্ঠানিক প্রতিবেদন এখনও প্রকাশিত হয়নি। তবে বৃদ্ধির এই হারের যদি অর্ধেকও বাড়ে তাহলেও ওই বছরেই তা হাজার জিবিপিএসের মাইলফলক ছাড়িয়ে যায়।

দেশের ইন্টারনেট সেবা দাতাদের সংগঠন আইএসপিএবি’র সভাপতি এম.এ. হাকিম টেকশহরডটকমকে জানান, এভাবে লাফিয়ে লাফিয়ে ব্যান্ডউইথের ব্যবহার বাড়ার অন্যতম কারণ ইন্টারনেটের দাম কমে যাওয়া। আগে এক হাজার টাকায় ২ এমবিপিএস পাওয়া গেলে এখন একই দামে ১০ এমবিপিএস মিলছে। ৫০০ টাকায় ৫ এমবিপিএস দেয়া হচ্ছে।

বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের নভেম্বরের শেষ পর্যন্ত যে হিসেবে জমা পড়েছে তাতে শুধু সরকারি কোম্পানি বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানির মাধ্যমে ব্যবহার হচ্ছিল ৬০৫ জিবিপিএস ব্যান্ডউইথ।

বাকি ব্যান্ডউইথ ছিল ছয়টি টেরিস্টোরিয়াল ক্যাবলের মাধ্যমে। যেখানে সামিট কমিউনিকেশনের ছিল ১৬৭ জিবিপিএস ব্যান্ডউইথ। ফাইবার অ্যাট হোমের মাধ্যমে ব্যবহার হচ্ছিল ১২০ জিবিপিএস আর বাকি চারটি আইটিসি মিলিয়ে মাত্র ১৮ জিবিপিএস।

ফাইবার অ্যাট হোমের চিফ স্ট্রাটেজিক অফিসার সুমন আহমেদ সাবির শনিবার টেকশহরডটকমকে জানান, এখন তাদের মাধ্যমে ১৪০ জিবিপিএস ব্যবহার হচ্ছে।

‘মাসে মাসে ইন্টারনেটের গ্রাহক বৃদ্ধি এবং ইন্টারনেটে কনটেন্ট ব্যবহারের যে পরিবর্তন (ভিডিও কনটেন্ট) এসেছে তা গুরুত্বপূর্ণ  কারণ ব্যান্ডউইথের এই ব্যবহার বৃদ্ধির’ বলছিলেন তিনি।

এর আগে ২০১৭ সালের ডিসেম্বরের শেষে দেশে ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথের ব্যবহার প্রথমবারের মতো পাঁচশ জিবিপিএস ছাড়িয়ে যায়।

আর আরেক ডিসেম্বর পেরুতে না পেরুতে সেটি দ্বিগুন হওয়া অনেকেই ডিজিটাইজেশনের পথে বড় অগ্রগতি বলে মনে করছেন।

বলা হচ্ছে, জিবিপিএস ইন্টারনেট ব্যান্ডউথের ব্যবহার বৃদ্ধি পাওয়ার পেছনে দেশে ফোরজি চালু, ফাইবার অপটিক সংযোগের প্রসারসহ নানাবিধ কারণ রয়েছে।

এর আগে ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে দেশে ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথের ব্যবহার ছিল তিনশ’জিবিপিএস।

নভেম্বরের শেষে দেশে মোট কার্যকর ইন্টারনেট সংযোগের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে নয় কোটি ১৮ লাখ। যার মধ্যে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে সংযোগ আছে আট কোটি ৬২ লাখ। সংখ্যায় মাত্র ৫৭ লাখ ৩৫ হাজার হলেও ব্রা্ডব্যান্ডের মাধ্যমেই ইন্টারনেট ব্যান্ডউইথের বেশীর ভাগ ব্যবহার হয়ে থাকে।

এর বাইরে ওয়াইম্যাক্স সংযোগ আছে আরো ৬১ হাজার।

*

*

আরও পড়ুন