Techno Header Top and Before feature image

বিচ্ছেদ হলে শীর্ষ ধনীর খেতাব হারাবেন বেজস!

bezos-techshohor

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : অচিরেই আলাদা হতে যাচ্ছেন অ্যামাজনের সিইও জেফ বেজস ও তার স্ত্রী ম্যাকেঞ্জি বেজস।

পৃথিবীর শীর্ষ ধনী ব্যক্তি হওয়াতে তার বিচ্ছেদও হবে ব্যয় বহুল। ওয়াশিংটনসহ যুক্তরাষ্ট্রের ৯টি প্রদেশে বৈবাহিক অবস্থায় অর্জিত সব সম্পদ বিচ্ছেদের সময় ভাগ হয় অর্ধেক অর্ধেক।

বেজসের ১৩৭ বিলিয়ন ডলারের (১৩ হাজার ৭০০ কোটি ডলার) সম্পত্তির পুরোটাই আছে অ্যামাজনের শেয়ার রূপে। তারা ওয়াশিংটনের বাসিন্দা হওয়ায় অ্যামাজনে বেজসের নামে থাকা ১৬ শতাংশ শেয়ারের অর্ধেক চলে যাবে ম্যাকেঞ্জির হাতে। এতে বিশ্বে শীর্ষ ধনী নারীর তালিকার প্রথমে চলে যাবে ম্যাকেঞ্জির নাম আর বেজস হারাবেন শীর্ষ ধনী ব্যক্তির তকমা।

অর্ধেক শেয়ারের মালিকানা ম্যাকেঞ্জি ধরে রাখবেন বলেই ধারণা করা হচ্ছে। কিন্তু যদি তিনি শেয়ার বিক্রি করে দেন তাহলে অ্যামাজনের শেয়ার মূল্যে ধস নামবে। এই শেয়ারের বদলে নগদ টাকাও চাইতে পারেন ম্যাকেঞ্জি। এতে বেজসকে বিক্রি করতে হবে কয়েক লাখ শেয়ার।

বিচ্ছেদের পর অ্যামাজনের ৮ শতাংশ শেয়ার পেলে শীর্ষ ধনী নারীর তালিকায় প্রথম স্থানে থাকা ফ্রানকোইস ব্যাটেনকোর্ট মেয়ারসকে টপকে যাবেন ম্যাকেঞ্জি। মেয়ারসের সম্পদের পরিমাণ ৪৫ দশমিক ৬ বিলিয়ন (৪ হাজার ৫৬০ কোটি ডলার)।  বিচ্ছেদ হলে ম্যাকেঞ্জির সম্পদের পরিমাণ দাঁড়াবে ৬৮ দশমিক ৫ বিলিয়ন (৬ হাজার ৮৫০ কোটি ডলার)।

তবে আদালতের বাইরে মধ্যস্থতা করে বেজসের সম্পদের ওপরে নিজের দাবি কমিয়ে আনতে পারেন ম্যাকেঞ্জি।

ই-কমার্স জায়ান্টটির এখন মোট বাজার মূল্য ৭৯৭ বিলিয়ন ডলার (৭৯ হাজার ৭০০ কোটি )। এছাড়াও, মহাকাশ যান তৈরির কোম্পানি ব্লু অরিজিন ও সংবাদ মাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্টেও বিপুল পরিমাণ বিনিয়োগ আছে বেজসের।

গত বুধবার টুইটারে এক যৌথ বিবৃতিতে, জেফ বেজস ও ম্যাকেঞ্জি বেজস ২৫ বছরের দাম্পত্যে ইতি টানার ঘোষণা দেন।

জানা যায়, জেফ বেজস ফক্স টিভির উপস্থাপিকা লরেন স্যানচেজের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছেন। গত বছরের শেষ দিকে তাদের এ সম্পর্ক তৈরি হয়।

আরও পড়ুন

জেফ বেজসের ২৫ বছরের সংসার ভাঙছে

বিজনেস ইনসাইডার অবলম্বনে এজেড/ জানু ১০/২০১৯/১৭০৭

*

*

আরও পড়ুন