এক মাসের মধ্যে আসছে এক-পে

ek-pay-techshohor1
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : আগামী ডিসেম্বরে দেশে চালু হতে যাচ্ছে আরও একটি নতুন পেমেন্ট প্ল্যাটফর্ম ‘এক-পে’। এটি সরকারের অ্যাকসেস টু ইনফরমেশন বা এটুআই প্রকল্পের তৈরি পেমেন্ট প্ল্যাটফর্ম।

মূলত সরকারি সেবার বিল ও সরকারি নানা ধরণের ফি নেওয়ার ক্ষেত্রে এ ই-পেমেন্ট প্ল্যাটফর্মটি ব্যবহার হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

এটুআই বলছে, বর্তমানে নানা ধরণের সেবার বিল হিসেবে গ্রাহকরা মাসে ছয় হাজার কোটি টাকা পরিশোধ করেন। কিন্তু এর মাত্র ১০ শতাংশ এখন ইলেক্ট্রনিক পদ্ধতিতে পরিশোধ করা হয়।

আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে মোট বিলের ৫০ শতাংশ ই-পেমেন্ট আকারে পরিশোধের লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে এটুআই। ‘এক-পে’ এ ক্ষেত্রে বড় ধরণের ভূমিকা রাখবে বলে মনে করছে তারা।

সম্প্রতি এ ক্ষেত্রে সরকারের ১৬ সেবা সংস্থার সঙ্গে একটি চুক্তি করেছে এটুআই। গত সোমবার সমঝোতা চুক্তি করেছে নয়টি ব্যাংক এবং দুইটি মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে।

এ প্রক্রিয়ায় আগামী এক মাসের মধ্যে ‘এক-পে’ প্লাটফর্মটি চালু করা সম্ভব হবে বলে জানিয়েছেন এটুআইর প্রকল্প পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান।

ইতিমধ্যে তারা প্লাটফর্মটি পরীক্ষা করেছেন এবং যথেষ্ট ভালো সাড়া পেয়েছেন। এর মাধ্যমে সরকারি সেবাকে আরও এক ধাপ এগিয়ে এনে ডিজিটাল রূপান্তরের কাজ করা সম্ভব হবে বলে মনে করেন প্রকল্প পরিচালক।

মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, তারা আশা করছেন পরবর্তীতে টেলিটকও এ সেবা কার্যক্রমের অংশ হয়ে উঠবে। ফলে ঘরে বসেই জনগণ তাদের সেবার বিল পরিশোধ করতে পারবেন, যা সময় ও খরচ দুটোই বাঁচাবে।

বিল পরিশোধের ক্ষেত্রে গ্রাহক নিজে দেশে প্রচলিত যে কোনো ক্রেডিট বা ডেভিড কার্ড ব্যবহার করতে পারবেন। তাছাড়া মােবাইল ব্যাংক বা অন্য কোনো এমএফএস অ্যাকাউন্ট থেকে বিল পরিশোধ করতে পারেবন। যার এমএফএস অ্যাকাউন্ট নেই তিনি এজেন্টের মাধ্যমে বিল দিতে পারবেন।

বিল পরিশোধের এ ডিজিটাইজেশনকে আইসিটি বিভাগের সচিব জুয়েনা আজিক ‘যুগান্তকারী পদক্ষেপ বলে মনে করেন।

সচিব বলেন, এর ফলে জনগণের ভোগান্তি অনেকাংশে কমবে। এ ছাড়া ডিজিটাল ব্যাংকিং পেমেন্ট প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে আর্থিক সেবা সবার কাছে পৌঁছে দিতে অত্যন্ত শক্তিশালী ভূমিকা পালন করবে।

এসজেড/আরআর/নভে ২২/২০১৮/১০৩৩

*

*

আরও পড়ুন