Techno Header Top and Before feature image

দেশে সাইবার সিকিউরিটি সেন্টার করবে স্মার্ট-ক্যাসপারস্কি

Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ক্যাসপারস্কিকে সঙ্গে নিয়ে দেশে সাইবার সিকিউরিটি সেন্টার প্রতিষ্ঠা করতে চায় স্মার্ট টেকনোলজিস।

এই সিকিউরিটি সেন্টারে ফরেনসিক ল্যাবও থাকবে। এছাড়া দেশের সাইবার সিকিউরিটি পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ এবং গবেষণা কার্যক্রম চালানো হবে এটি হতে।

বুধবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু সম্মেলন কেন্দ্রে স্মার্ট-ক্যাসপারস্কির এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান স্মার্ট টেকনোলজিসের এমডি মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম।

দেশে ক্যাসপারস্কির পরিবেশক হওয়ার ঘোষণা দিতে এ সংবাদ সম্মেলন আয়োজন করা হয়েছিল।

এতে উপস্থিত ছিলেন ক্যাসপারস্কি ল্যাবের সাউথ এশিয়া অঞ্চলের জেনারেল ম্যানেজার শ্রেনিক ভায়ানি, স্মার্ট টেকনোলজিসের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর এসএম মহিবুল হাসান এবং পরিচালক মুজাহিদ আল বেরুনী সুজন।

সংবাদ সম্মেলন শেষে জহিরুল ইসলাম টেকশহরডটকমকে জানান, ‘আমরা বিষয়টি নিয়ে পরিকল্পনা করছি। ক্যাসপারস্কি আমাদের সঙ্গে থাকছে। এই সেন্টার আন্তর্জাতিক মানের হবে। এখানে আন্তর্জাতিক মানের সিকিউরিটি বিশেষজ্ঞরা কাজ করবেন।’

‘এখন পর্যন্ত বেসরকারি উদ্যোগে দেশে এটিই হবে এ ধরনের প্রথম সাইবার সিকিউরিটি সেন্টার। এখান হতে সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো সেবা পাবে। এছাড়া যেকেউ জরুরি প্রয়োজনে সহযোগিতা নিতে পারবে’। বলছিলেন জহিরুল ইসলাম।

শ্রেনিক ভায়ানি বলেন, বাংলাদেশের বাজারে ক্যাসপারস্কি বেশ ভাল অবস্থানে রয়েছে। সাউথ এশিয়ার বাজারে তাদের শেয়ার ২০ শতাংশ। আর এর ১৭ শতাংশই বাংলাদেশে। তাই বাংলাদেশের বাজার নিয়ে গুরুত্বের সঙ্গে ভাবছেন। সেই ভাবনা হতেই এখানে কিছু করতে চান তারা।

কবে নাগাদ এই সেন্টার হবে সে বিষয়ে কিছু জানায়নি স্মার্ট-ক্যাসপারস্কি।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, দেশের ৯৬ শতাংশ মানুষ পাইরেটেড সফটওয়্যার ব্যবহার করে। আর ব্যক্তি পর্যায়ের কম্পিউটার ব্যবহারকারীরাই ইন্টারনেটে সবচেয়ে ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে।

খাতভিত্তিক সবচেয়ে ঝুঁকিতে রয়েছে আর্থিক খাত। দেশের ৮০ শতাংশ আর্থিক প্রতিষ্ঠানে ক্যাসপারস্কি ব্যবহার করা হয় বলে সংবাদ সম্মেলনে দাবি করা হয়।

এসএম মহিবুল হাসান জানান, বাংলাদেশের বাজারে প্রতি মাসে সব মিলিয়ে ১ লাখ অ্যান্টিভাইরাস বিক্রি হয়।

এডি/নভে১৪/২০১৮/১৬৪০

 

*

*

আরও পড়ুন