প্রযুক্তি বিশ্ব হাইলাইটস (১১ নভেম্বর ২০১৮)

Evaly in News page (Banner-2)

টেকশহরডটকমের আজকের দিনের আলোচিত আন্তর্জাতিক খবর নিয়ে ভিডিও পর্যালোচনা

স্মার্টফোনপ্রেমীদের আলোচনার কেন্দ্রে এখন ভাঁজ করা ডিসপ্লের ফোন। স্যামসাংকে পেছনে ফেলে রয়োলের চমকের পর এ ফোন তৈরির দৌঁড়ে সামিল হচ্ছে আরও ব্র্যান্ড। এখনও হাতে না আসলেও সামনের দিনগুলোতে বাজার চাহিদা কেমন হতে তা নিয়ে জল্পনা কল্পনার পাশাপাশি চলছে গবেষণাও।

ফোল্ডেবল ফোন তৈরির এ ট্রেন্ড সহজে থামছে না বলে মনে করছে লন্ডনভিত্তিক বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান আইএইচএস মার্কিট। তাদের অনুমান, ২০২৫ সালের মধ্যে বাজারে সরবরাহ করা হবে পাঁচ কোটি অ্যামোলেড স্ক্রিনের ফোল্ডেবল ফোন।এখন পর্যন্ত শুধু রয়োল কর্পোরেশন ও স্যামসাং নতুন এ স্মার্টফোন উন্মোচন করেছে। বাকি কোম্পানিগুলোও হাত গুটিয়ে বসে নেই। জানা গেছে, এলজি, হুয়াওয়ে, অপ্পো ও শাওমিও শামিল হয়েছে ফোল্ডেবল স্মার্টফোন আনার দৌঁড়ে।

অনেক বছর ধরে পিক্সেল সিরিজের স্মার্টফোন বানাচ্ছে গুগল। তাদের সর্বশেষ ফোন  পিক্সেল ৩। তবে ফোনগুলোর হার্ডওয়্যার নষ্ট হলে দায় ভার নিচ্ছে না টেক জায়ান্টটি। এমনকি টাকা দিয়েও বদলানো যাচ্ছে না ভাঙা স্ক্রিন।

পিক্সেল ফোন নিয়ে বরাবরই হতাশ হয়েছেন গ্রাহকরা। গুগলের এই ফোনটি নিয়ে অভিযোগেরও শেষ নেই। সর্বশেষ পিক্সেল ৩ ও ৩ এক্সএলের অভ্যন্তরীণ সমস্যা নিয়েও তেমনটাই হতাশ এর গ্রাহকরা। দুর্ঘটনাবশত ফোনের স্ক্রিন ভেঙে  তার মেরামতের কোন উপায় রাখেটি গুগল। কারণ বাজারে তার কোন যন্ত্রাংশই ছাড়েনি প্রতিষ্ঠানটি। যে কারণে চটেছেন এর ক্রেতারা। কারণ, চাইলেও তারা টাকা দিয়েও সেবা নিতে পারছেন না।

বিশ্ব বদলে যাচ্ছে খুব দ্রুত। আগামী ২০১৫০ সালে কী হবে তার ধারণা করা কঠিন। বিশেষ করে প্রযুক্তি উদ্ভাবনে। তারপরও বিজ্ঞানী ও উদ্ভাবকরা ধারণা করছেন, কী হতে যাচ্ছে ২০৫০ সালের মধ্যে। প্রযুক্তি সাইট ভার্জের প্রতিবেদনে সেগুলো উঠে এসেছে। ফাইভজি, কোয়ান্টাম কম্পিউটার, এআর-ভিআর, হলোগ্রাফিক ফোনকল, এআই-মেশিন লার্নিং, স্বচালিত গাড়ি, ইলেক্ট্রিক গাড়ি, সোলার প্যানেলের সাহায্যে পুনউৎপাদনযোগ্য জ্বালানি, রোবট, ড্রোনসহ নানা ক্ষেত্রেই আসবে বৈপ্লবিক পরিবর্তন।

 

 

*

*

আরও পড়ুন