ভারতে অনলাইনে বিক্রির ৫ পণ্যের একটিই নকল

online-shopping-pc-techshohor
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : ভারতে ই-কমার্স সাইটে বিক্রি হওয়া প্রতি পাঁচ পণ্যের একটি নকল। অ্যামাজন, ফ্লিপকার্ট, স্ন্যাপডিলের মতো নামি ও জনপ্রিয় প্রতিষ্ঠানেরও নাম উঠেছে নকল পণ্য বিক্রির তালিকায়।

ই-কমার্স সাইটগুলো প্রসাধনী ও সুগন্ধির ক্ষেত্রেই সবচেয়ে বেশি নকল পণ্য গ্রাহকদের কাছে পাঠিয়ে থাকে। প্রায় ৩৫ শতাংশ গ্রাহক এমন দাবি করেছেন। ২২ শতাংশ খেলাধূলার নকল সরঞ্জাম এবং ৮ শতাংশ গ্রাহক নকল ব্যাগ বিক্রির অভিযোগ করেছেন।

লোকাল সার্কেল নামের একটি সিটিজেন এনগেজমেন্ট প্লাটফর্ম জরিপের ভিত্তিতে এমন দাবি করেছে।

৩০ হাজার অনলাইন ক্রেতার ওপর এ সমীক্ষা চালায় প্রতিষ্ঠানটি। জরিপের তথ্য অনুযায়ী, ছয় মাসে বিক্রি হওয়া পণ্যের মধ্যে ২০ শতাংশই নকল।

আর এসব ক্রেতাকে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল, তারা অ্যামাজন, স্ন্যাপডিল, ফ্লিপকার্ট ও পেটিএম থেকে গত ছ’মাসে কোনও নকল পণ্য পেয়েছেন কিনা?

online-ecommerce-techshohor
সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া

তাদের মধ্যে ৩৭ শতাংশ জানিয়েছেন, স্ন্যাপডিল থেকেই তারা বেশি নকল পণ্য পেয়েছেন। ২২ শতাংশ ফ্লিপকার্ট, ২১ শতাংশ পেটিএম ও ২০ শতাংশ বলেছেন তারা অ্যামাজন থেকে নকল পণ্য পেয়েছেন।

অল্প সংখ্যক ক্রেতা জানান, তারা যে পণ্য পেয়েছেন তা আসল না নকল তা জানেন না।

তবে এ সমীক্ষার তথ্য খন্ডন করে ই-কমার্স কোম্পানিগুলো জানিয়েছে, নকল পণ্য বিক্রি বন্ধে তাদের কড়া নীতি রয়েছে। এ রকম ঘটনা ঘটলে তারা ক্রেতাদের টাকা ফিরিয়েও দেয়। যারা নকল পণ্য পাঠায় সেই সব প্রতিষ্ঠানকে কালো তালিকাভুক্ত করা হয়।

শুধু ভারতেই নয়, বিশ্বজুড়েই অনলাইনে নকল পণ্য বিক্রির অভিযোগ দীর্ঘদিনের। নকল পণ্য বিক্রি বন্ধ করতে হিমশিম খাচ্ছে ই-কমার্স জায়েন্ট অ্যামাজন ও আলিবাবাও।

টাইমস অব ইন্ডিয়া অবলম্বনে এসআই/আরআর/নভে০৬/২০১৮/০১৫০

আরো পড়ুন ঃ-

এবার নকলবাজ ধরবে ড্রোন

অ্যামাজনকে টেক্বা দিতে স্ন্যাপডিলে ফের বিনিয়োগ

ফ্লিপকার্টকে টেক্কা দিতে অ্যামাজনের হিন্দি ওয়েবসাইট!

 

*

*

আরও পড়ুন