চলে গেলেন সুপার মারিও

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : চিরতরে বিদায় নিলেন সুপার মারিও, তবে গেইমে নয় বাস্তবে। নিনটেন্ডোর জনপ্রিয় গেইম সুপার মারিওর মূল চরিত্রের নামকরণ করা হয়েছিল মারিও সিগেলের নামে। সেই সিগেল সম্প্রতি ৮৪ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেন।

মারিও সিগেল ছিলেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনের একজন সফল রিয়েল স্টেট ব্যবসায়ী। ২৭ অক্টোবর স্থানীয় এক হাসপাতালে তিনি মারা যান। তবে কী কারণে তার মৃত‍্যু ঘটে সে তথ‍্য জানা যায়নি। স্ত্রী ডোনা ছাড়াও চার সন্তান ও নয় নাতি নাতনি রেখে গেছেন তিনি।

৮০-র দশকে নিনটেন্ডো অফ আমেরিকাকে একটি গুদামঘর ইজারা দিয়েছিলেন মারিও সিগেল। এই ঘর থেকেই বাণিজ্যিকভাবে আরও সফলতা পেয়েছিল গেইম নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি। তাই কৃতজ্ঞতা স্বরূপ তার নাম অনুসারে গেইমের নামকরণ করা হয় সুপার মারিও। এছাড়া, গেইমের প্রধান চরিত্রটির নামও তার নামেই রাখা হয়। তবে গেইমটির শুরুতে সুপার মারিওকে ডাকা হতো ‘জাম্পম্যান’ নামে।

গেইমটি যে সিগেলের নাম যুক্ত করা হয়েছিল প্রথমে তিনি তা জানতেন না। পরবর্তীতে নিনটেন্ডো অফ আমেরিকা প্রতিষ্ঠার প্রধান মিনোরু আরাকায়া তাকে এই তথ‍্যটি জানান। সেই সময় সিগেল বলেছিলেন,  এই খবরে আমি সত‍্যি অভিভূত।

জাপানি প্রতিষ্ঠান নিনটেন্ডো ১৯৮৫ সালে ১৩ সেপ্টেম্বর মাসে সুপার মারিওর প্রথম সংস্করণ বাজারে এনেছিল। ২০১৬ সালে গেইমটির অ‍্যান্ড্রয়েড সংস্করণ বাজারে আসে। তখন মাত্র চার দিনে গেইমটি চার কোটি ডাউনলোডের রেকর্ড করেছিল। এছাড়া গেইমটির সর্বশেষ সংস্করণ সুপার মারিও ওডেসি নিনটেন্ডোর সুইচ কনসোলের এক কোটি ২০ লাখ কপি বিক্রি হয়েছে।

বিবিসি অবলম্বনে টিএ/ এজেড/ নভে ৩/ ২০১৮/ ১৪০০

*

*

আরও পড়ুন