Header Top

থ্রিজির গতি ২ এমবিপিএস, কল ড্রপ সর্বোচ্চ ২%

smartpthone-techshohor-internet
ফাইল ছবি
Evaly in News page (Banner-2)

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : প্রথমবারের মতো থ্রিজি প্রযুক্তির ইন্টারনেটে ডাউনলোডের সর্বনিন্ম গতি দুই এমবিপিএস নির্ধারণ করেছে সরকার। আর টুজি ইন্টারনেটের ক্ষেত্রে এটি নির্ধারণ করা হয়েছে প্রতি সেকেন্ডে ১৬০ কিলো বিটস বা কেবিপিএস।

আগে থেকেই অবশ্য ফোরজি প্রযুক্তির ইন্টারনেটের সর্বনিন্ম গতি নির্ধারণ করা হয়েছিল ৭ এমবিপিএস। আর ব্রডব্যান্ডের বর্তমান সর্বনিম্ন গতি ৫ এমবিপিএস। এ গতি দ্বিগুণ করার সরকারি পদক্ষেপ চূড়ান্ত অনুমোদনের প্রক্রিয়ায় রয়েছে।

মোবাইল ফোনে ইন্টারনেটের গতি নির্ধারণসহ আরও কয়েকটি বিষয় সংযুক্ত করে টেলিযোগাযোগ খাতের বহুল আলোচিত ‘কোয়ালিটি অব সার্ভিস’ (কিউওএস) নীতিমালা অনুমোদন দিয়েছে সরকার।

কমিশনে এ নীতিমালা চূড়ান্ত করার পর সেটি অনুমোদনের জন্য টেলিযোগাযোগ মন্ত্রনালয়ে পাঠায় বিটিআরসি। সম্প্রতি নীতিমালাটির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

একই ভাবে নীতিমালায় ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানের (আইএসপি) এবং মোবাইল ফোন অপারেটর- উভয়ের ক্ষেত্রে বলা হয়েছে, একটি ওয়েবসাইট ডাউনলোড হতে হবে ৭ সেকেন্ডের মধ্যে।

নীতিমালায় মোবাইলে কথা বলার ক্ষেত্রে কল ড্রপের হার সর্বোচ্চ দুই শতাংশ হতে পারবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

অন্যদিকে ঘোষিত মানদণ্ড অনুসারে সেবা দেওয়া না হলে সংশ্লিষ্ট অপারেটরকে জরিমানা করতে পারবে বিটিআরসি বলে নীতিমালায় সুস্পষ্ট করা হয়েছে।

মোবাইল অপারেটর ছাড়াও আইএসপি, ওয়াইম্যাক্স, বিটিসিএলের (ল্যান্ডফোন) মতো সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোকেও কিউওএস নীতিমালা মেনে চলতে হবে।

নীতিমালা বিষয়ে বিটিআরসি’র প্রকৌশল ও অপারেশন বিভাগের এক কর্মকর্তা বলেন, মোবাইল ফোনে ভয়েস কল ও ইন্টারনেটের উচ্চমূল্য, দুর্বল নেটওয়ার্ক কাভারেজ, নেটওয়ার্ক সমস্যা, ভয়েস কলের নিম্নমান এবং গ্রাহক সেবার অসন্তুষ্টি দূর করবে এ নীতিমালা।

ওই কর্মকর্তা বলছেন, কমিশনের একটি কারিগরি পর্যবেক্ষণ দল মান নিশ্চিত করতে কাজ করবে। অপারেটরগুলো এ ক্ষেত্রে দোষী প্রমাণিত হলে তাদেরকে জরিমানা করার বিধান থাকবে নীতিমালায়।

আরও পড়ুন : ১০ এমবিপিএস গতি ছাড়া ব্রডব্যান্ড নয়, শিগগির প্রজ্ঞাপন

*

*

আরও পড়ুন