Techno Header Top and Before feature image

ওয়ার্ল্ড সামিট অ্যাওয়ার্ডে যাচ্ছে সাত উদ্যোগ

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : জাতিসংঘের ওয়ার্ল্ড সামিট অ্যাওয়ার্ডের মূল পর্বে মনোনীত হয়েছে দেশের সাত উদ্যোগ।

আগামী নভেম্বরে ঘানায় অনুষ্ঠিতব্য বৈশ্বিক পর্বে বিশ্বের ১৬০ দেশের পাঁচ শতাধিক উদ্যোগের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে দেশের ডিজিটাল উদ্ভাবনগুলো। সেখানে নির্মাতারা ওয়ার্ল্ড সামিট অ্যাওয়ার্ডের আন্তর্জাতিক পার্লামেন্টে দর্শকদের সামনে নিজেদের উদ্ভাবনকে তুলে ধরবেন।

চূড়ান্ত মনোনয়ন পাওয়া উদ্যোগগুলো হচ্ছে-বিজনেস অ্যান্ড কমার্স ক্যাটাগরিতে ‘জেমসক্লিপ ডটকম’, এনভায়রনমেন্ট অ্যান্ড গ্রিন এনার্জি ক্যাটাগরিতে ‘জিওপটেটো’, গভর্নমেন্ট অ্যান্ড সিটিজেন এনগেজমেন্ট ক্যাটাগরিতে ‘সিস্লিফিকেশন অব কৃষি অ্যান্ড পল্লী লোন’, হেলথ অ্যান্ড ওয়েল বিং ক্যাটাগরিতে ‘টেলি হেলথ ফর পেলিয়েটিভ পেশেন্ট’, ইনক্লুশন অ্যান্ড এমপাওয়ারমেন্ট ক্যাটাগরিতে ‘লো কস্ট কমিউনিকেশন ডিভাইস ফর পাসরন উইথ স্পিস ডিজঅ্যাবিলিটি’, লার্নিং অ্যান্ড এডুকেশন ক্যাটাগরিতে ‘সাইন ল্যাঙ্গুয়েজ ট্রান্সলেটর’, স্মার্ট সেটেলমেন্ট অ্যান্ড আরবানাইজেশন ক্যাটাগরিতে ‘ই-পার্কিং’।

এর আগে ১৪ সদস্যের একটি জাতীয় জুরি বোর্ড আবেদন পাওয়া ডিজিটাল উদ্যোগগুলোর মধ্যে থেকে বাংলাদেশ পর্বে অংশগ্রহণকারী উদ্যোগগুলো যাচাই-বাছাই করে একটি সংক্ষিপ্ত তালিকা করে।

ডাব্লিউএসের জুরি বোর্ড সদস্য ও এমসিসি লিমিটেডের সিইও আশ্রাফ আবির বলেন, দেশের তরুণদের উদ্ভাবনী উদ্যোগের সঙ্গে সম্পৃক্ত করে বিশ্বের বিলিয়ন ডলারের বাজারে প্রবেশে সহায়তা দিতে এমন আয়োজন।

ইনফরমেশন সোসাইটি (ডাব্লিউএসআইএস)-এর সহযোগিতায় ডাব্লিউএসএ গ্লোবাল কংগ্রেসে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হবে।

এতে ১৭৮টি দেশের ডিজিটাল উদ্ভাবনের নির্মাতা অংশ নেবেন। তথ্যপ্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে সমাজের উন্নয়নে অবদানের জন্য ২০০৩ সাল থেকে অস্ট্রিয়া ভিত্তিক এই সংস্থা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন ব্যক্তি ও সংগঠনকে সম্মানসূচক এই অ্যাওয়ার্ড দিয়ে আসছে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীর।

ইমরান হোসেন মিলন

*

*

আরও পড়ুন