Samsung HHP Online Campaign

গুজব সনাক্ত ও নিরসনে ৩ ঘণ্টায় ব্যবস্থা : তারানা হালিম

টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়ানো গুজব মাত্র তিন ঘণ্টার মধ্যে সনাক্ত করে তা নিরসনে ব্যবস্থা নিতে সরকার কাজ করছে।

কাজটি করা হবে এসব সনাক্ত ও নিরসনে নেওয়া উদ্যোগ ‘গুজব সনাক্তকরণ ও নিরসন কেন্দ্র’ প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে। আর তারাই এগুলোর বিরুদ্ধে কাজ করবে।

মাত্র তিন ঘণ্টার মধ্যে এগুলো সনাক্ত করে তা প্রেস নোট আকারে গণমাধ্যমে পাঠানোর পরিকল্পও সরকারের রয়েছে বলে জানিয়েছেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

Techshohor Youtube

বুধবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়ের সময় তারানা হালিম জানান, গুজব সনাক্তকরণ ও নিরসন কেন্দ্র চলতি মাস থেকেই কাজ শুরু করবে। আর  এটি কাজ করবে ২৪ ঘণ্টাই।

অবশ্য মঙ্গলবার মন্ত্রলাণয়টির মন্ত্রী হাসানুল হক ইনু নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের সময় গুজব ছড়ানোর প্রেক্ষাপটে জাতীয় নির্বাচনের আগে ইন্টারনেটে ‘অপপ্রচার’ বন্ধে এই কেন্দ্র প্রতিষ্ঠার উদ্যোগের কথা জানান।

ইন্টারনেট ব্যবহার করে সামাজিক মাধ্যমগুলোতে বিশেষ করে ফেইসবুকে নির্বাচনের আগে গুজব ছড়ানোর হার খুবই বেড়েছে। এসব গুজবকে তরুণরা সত্য বলে ধরে নেয়। কারণ সচেতনতার অভাব। তাই তথ্য মন্ত্রণালয় নিমকো থেকে লোকবল নিয়ে পিআইডিতে এই টিম করবে বলে জানান তারানা হালিম।

তিনি জানান, কোনো গুজব সামাজিক মাধ্যমে আসার তিন ঘণ্টার মধ্যে তা চিহ্নিত করে সকল সরকারি-বেসরকারি টিভি চ্যানেল এবং এফএম রেডিও ও সংবাদ মাধ্যমে তা জানিয়ে দিতে পিআইডি থেকে প্রেসনোট যাবে যে এ সংবাদ ভিত্তিহীন গুজব ও অসত্য। এর মাধ্যমে তথ্যভিত্তিক তথ্য প্রতিষ্ঠিত হবে।

এসব কাজের সঙ্গে বিএনপি-জামায়াতের সংযোগ রয়েছে বলে জানিয়ে তারানা হালিম বলেন, নির্বাচনের আগে এমন গুজব ছড়ানো বেড়ে যেতে পারে। বিএনপি-জামায়াতের লন্ডনভিত্তিক প্রচারণা সেল আছে এবং তিনশোর বেশি ফেইসবুক পেইজ রয়েছে জামায়াতের এবং তারা অ্যাকটিভ। নির্বাচনের আগে এই প্রবণতাটা বেড়ে যাবে।

এছাড়াও  গুজব সনাক্তকরণ ও নিরসন কেন্দ্রে একটি ফোন নম্বর দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে। প্রাথমিকভাবে সাতজনের একটি টিম এই কেন্দ্রে কাজ করবে। এমনকি নির্বাচনের পরও এই টিম কাজ করবে বলেও জানান তিনি।

ইমরান হোসেন মিলন

*

*

আরও পড়ুন